বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

পরকীয়ার জেরে বন্ধুকে হত্যা মামলার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

আপডেট : ১৮ মে ২০২৪, ১১:২৫ এএম

বগুড়া সদরের শহরদিঘী পশ্চিমপাড়ায় আলী আহসান (৩২) হত্যার ঘটনার প্রধান আসামি সবুজ সওদাগরকে (৩৪) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুক্রবার দিবাগত রাতে বেলাইল হাজির মিল এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে বগুড়া সদর থানা পুলিশ। শনিবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরাফত ইসলাম।

এর আগে গত ১৪ মে দুপুরে আলি আহসানকে নিজের গ্রামের বাড়িতে ডেকে নিয়ে হত্যা করে তারই বন্ধু সবুজ সওদাগর। গ্রেপ্তার সবুজ শহরদিঘী পশ্চিমপাড়ার মৃত সিরাজ সওদাগরের ছেলে। তাঁর নামে দুটি হত্যা মামলা ও দুটি অস্ত্র মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। 

নিহত আলী আহসান মালগ্রাম এলাকার আলী জিন্নার ছেলে। গত ১৫ মে নিহতের বাবা আলী জিন্না বাদী হয়ে বগুড়া সদর থানায় সবুজ সওদাগরকে প্রধান আসামী করে ও অজ্ঞাত আসামীদের নামে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরাফত ইসলাম জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে নিহত আলী হাসান (৩২) ও সবুজ সওদাগর এর মধ্যে দীর্ঘদিন যাবত বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক ছিল। বছরখানেক আগে আলি জেল হাজতে থাকা অবস্থায় তাঁর স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়ার সম্পর্ক গড়ে ওঠে সবুজ সওদাগরে। এ নিয়ে তাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব তৈরি হলে পারিবারিকভাবেই আপোষ হয়। কিন্তু পরে এ নিয়ে আবার ঝামেলা তৈরি হলে আসামি সবুজ কৌশলে আলী হাসানকে  গত ১৪ মে দুপুরের দিকে তাদের শহরদিঘী পশ্চিমপাড়া গ্রামস্থ বসতবাড়িতে ডেকে নিয়ে ছুরিকাঘাত করে। পরে তাকে সিএনজিতে করে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল বগুড়ায় এনে জরুরী বিভাগে ভর্তি করে কৌশলে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা। সেখানে বেলা সাড়ে তিনটার দিকে আলী হাসান মারা যান। এ ঘটনার পরের দিন হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহতের বাবা আলী জিন্না।

তিনি আরও জানান, শনিবার দুপুরে গ্রেপ্তারকৃত আসামীকে আদালতে পাঠানো হবে। এছাড়া পলাতক আসামীদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলমান আছে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত