শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় জানালেন ভারতীয় জ্যোতিষী

আপডেট : ২৫ মে ২০২৪, ০৮:৫৩ পিএম

সম্প্রতি ইরান-ইসরায়েল যুদ্ধ, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের মতো পরিস্থিতি দেখে অনেক জ্যোতিষীই আরও একটি যুদ্ধ হওয়া বাকি আছে বলে মতপ্রকাশ করেছেন। কিন্তু সেই যুদ্ধ কবে শুরু হবে তা এর আগে কেউ বলেননি।
 
তবে সম্প্রতি ভারতের এক জ্যোতিষী তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরুর দিন-তারিখও দিয়েছেন। তার মতে, তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হতে বাকি আর মাত্র কয়েক সপ্তাহ। যে ভারতীয় জ্যোতিষী এই ভবিষ্যদ্বাণীটি করেছেন তার নাম কুশল কুমার। খবর এনডিটিভির।

অনলাইনভিত্তিক জনপ্রিয় প্রকাশনা প্ল্যাটফর্ম ‘মিডিয়া’ অ্যাকাউন্ট অনুযায়ী, তিনি একজন বৈদিক জ্যোতিষী। তিনি ভবিষ্যতের ঘটনা সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী করতে গ্রহের অবস্থান দেখানো চার্ট ব্যবহার করেন। তার এই ভবিষ্যদ্বাণীটি নজর কেড়েছে নেটিজেনদের।

সম্প্রতি মিডিয়াতে একটি পোস্ট করেছেন। সেখানে কুশল জানিয়েছেন, শিগগিরই গোটা বিশ্বে একটি যুদ্ধের পরিস্থিতি তৈরি হবে। কোরিয়া, চীন, তাইওয়ান, মধ্যপ্রাচ্য, ইউক্রেন-রাশিয়ার মধ্যে যুদ্ধ পরিস্থিতি আরও মারাত্মক আকার ধারণ করবে।

তার মতে, কয়েকটি দেশে আবার এমন পরিস্থিতি তৈরি হবে যে সেখানে শাসন ক্ষমতায় থাকা দলগুলো তাদের ক্ষমতা ধরে রাখতে রীতিমতো নাকানিচুবানি খাবে। সে কারণে অনেক রাষ্ট্রনেতাই পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে না পেরে পদত্যাগ করতে বাধ্য হবেন।

তিনি বলেছেন, ২০২৪ সালের মধ্যেই বিশ্বজুড়ে যুদ্ধ পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়া নিয়ে উদ্বেগ রয়েছে। বিশেষ করে ৮ মের কাছাকাছি কোরিয়া-চীন-তাইওয়ান ও মধ্যপ্রাচ্যের মতো যুদ্ধের ফ্রন্টে উঠে আসবে ইসরায়েল।

তিনি আরও বলেছেন, গ্রহগুলোর সমসাময়িক গতিবিধি নির্দেশ করে যে, বিশ্ব খুব ভঙ্গুর সময়ের দিকে ধাবিত হচ্ছে। এমন অবস্থায় যুদ্ধবিশ্ব শুরু হওয়ার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি রয়েছে চলতি বছরের ১৮ জুনে। তবে ১০ ও ২৯ জুনেও এর প্রকাশ ঘটতে পারে।

ইতিমধ্যেই এই জ্যোতিষী কুশল কুমারের ভবিষ্যদ্বাণী সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। আগেও একাধিক জ্যোতিষী ভারতসহ গোটা বিশ্বের বিভিন্ন বিষয়ে ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন। ঘটনাক্রমে সেগুলোর কিছু কিছু মিলেও গেছে। এবারের তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের ভবিষ্যদ্বাণী কতটা মিলবে, তা সময়ই বলে দেবে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত