মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ম্যানইউ না চাইলে অন্য কোথাও গিয়ে ট্রফি জিতবো, বললেন টেন হ্যাগ

আপডেট : ২৬ মে ২০২৪, ০৪:২১ পিএম

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কোচ এরিক টেন হাগ এখন যদি চলে যান, তাহলে ওয়েম্বলিতে হাজার হাজার উচ্ছ্বসিত সমর্থকদের সামনে তার বিদায় সংবর্ধনাটা হয়ে গেছে। যদিও এফএ কাপের শিরোপা উঁচিয়ে ধরার পর তাকে ধরে রাখার বিষয়টি হয়তো পুনর্বিবেচনা করবে ক্লাব কর্তৃপক্ষ। ম্যানচেস্টারে লাল দুর্গে আসার পর গতকালই যে শুধুমাত্র সেরা সময়টি পেয়েছেন তিনি।

কাল ওয়েম্বলিতে ম্যানসিটিকে ২-১ গোলে হারিয়ে এফএ কাপের শিরোপা জিতেছে ম্যানইউ। ২০১৬ সালের পর এটাই তাদের প্রথম এফএ কাপ জয়। যে জয় দিয়ে টেন হাগেরও যেন পুনর্জন্ম হলো। এই ফাইনালটি মাঠে বসে উপভোগ করেছেন ম্যানইউয়ের সহ-মালিক স্যার জিম র‌্যাটক্লিফ। ম্যাচের পর পুরস্কার বিতরণের সময় টেন হাগের সঙ্গে তাকে হেসে কথা বলতেও দেখা গেছে। যদিও তার শরীরী ভাষায় এমন কিছুই ছিল না, যা দেখে মনে হয়েছে এই অর্জনে তিনি হাগের প্রতিভায় মুগ্ধ হয়ে গেছেন।

খেলা শেষে একটি বিবৃতি দিয়েছেন র‌্যাটক্লিফ। যেখানে তিনি বলেছেন, ‘সম্পূর্ণ প্রতিশ্রুতি এবং দক্ষতা দিয়ে খেলায় এসেছে এই শিরোপা। এই অর্জনে খেলোয়াড় ও স্টাফদের জন্য আমি গর্বিত।’

র‌্যাটক্লিফের এই বিবৃতিতে টেন হাগের ভবিষ্যৎ নিয়ে কোনো ইঙ্গিত ছিল না। তবে ক্লাবের সাবেক অন্তবর্তীকালিন কোচ রাল্ফ রাঙ্গনিক একবার দাবি করেছিলেন ম্যানইউর ‘ওপেন হার্ট সার্জারি’ প্রয়োজন।

কাল এফএ কাপ জেতার পর টেন হাগ দলটির চোটের তালিকার দিকেও ইঙ্গিত করে বলেন, ‘আমি সারা বছরই বলি, খেলোয়াড়রা ফিট থাকলে আমরা ভালো ফুটবল খেলতে পারি। বিশ্বের সেরা ক্লাবের (ম্যানসিটি) বিপক্ষে দারুণ পারফরম্যান্স ছিল এটি। আমি মনে করি সমালোচকদের মুখ বন্ধ হবে এবার। তবে মৌসুমজুড়ে যেভাবে চোট হানা দিয়েছে, তাতে সবাইকে না পাওয়াতে সবসময় সেরাটা দেখানো সম্ভব হয়নি। গত দুই বছরে বড়জোর তিন-চারবার পুরো স্কোয়াড পেয়েছি আমরা। এখানেও আমরা হ্যারি ম্যাগুইয়ার, লুক শ ও কাসেমিরোর মতো বড় মাপের খেলোয়াড়দের মিস করছিলাম।’

পরের মৌসুমে ওল্ড ট্রাফোর্ডের ক্লাবটিতে নিজের ভবিষ্যৎ নিয়ে নিশ্চিত নন জানিয়ে টেন হাগ বলেন, ‘দুই বছরে দুটি শিরোপা এবং তিনটি ফাইনাল খারাপ না। যদি তারা আমাকে না চায়, তবে আমি অন্য কোথাও গিয়ে ট্রফি জিতব। কারণ, এটাই আমি করি।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত