বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

কানে সেরা হয়ে যা বললেন অনসূয়া

আপডেট : ২৬ মে ২০২৪, ০৪:৫৩ পিএম

কান চলচ্চিত্র উৎসবের ৭৭তম আসরে সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার জিতেছেন কলকাতার অভিনেত্রী অনসূয়া সেনগুপ্ত। ‘দ্য শেমলেস’ সিনেমার জন্য এ পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। 

কানে সেরা হওয়ার তাৎক্ষণিক অনুভূতি জানিয়ে অভিনেত্রী বলেন, এই মুহূর্তে আমি আনন্দে বিহ্বল। আমাকে কিছুটা সময় দিন। বাড়ি ফেরার আগে এর বেশি কিছু বলতে পারছি না। আশা করি বুঝবেন। খুব শিগগিরিই একটা সাংবাদিক সম্মেলন হবে। তখন অনেক কিছু বলব। নিজের অনুভূতিগুলো আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করতে মুখিয়ে রয়েছি।

উইলিয়াম ডালরিম্পলের ‘নাইন লাইভস’-এর আদলে তৈরি ‘দ্য শেমলেস’ সিনেমায় দুরন্ত অভিনয়ের জন্যই কান চলচ্চিত্র উৎসবের ‘আন সার্টেন রিগার্ড’ বিভাগের সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার পেয়েছেন অনসূয়া। কলকাতার এই মেয়ে পড়াশোনা করেছেন ইংরেজি সাহিত্য নিয়ে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে।

মুম্বাইয়ে মূলত প্রোডাকশন ডিজাইনারের কাজ করেন অনসূয়া সেনগুপ্ত, থাকেন গোয়ায়। পরিচালক কিউ-এর মাধ্যমে বুলগেরিয়ান পরিচালক কনস্ট্যানটিন বোঁজ্যনভের সঙ্গে তার আলাপ হয়। অনসূয়ার আঁকা দেখে মুগ্ধ হন পরিচালক। 

এক সাক্ষাৎকারে পরিচালক বলেন, আমার আর অনসূয়ার বন্ধুত্ব তার আঁকার জন্য। আমি ওর ছবিগুলো যত দেখেছি, নিজের সিনেমার চরিত্রকে চোখের সামনে দেখতে পেয়েছি। এর মধ্যে কিন্তু বেশ কয়েকজন প্রতিভাবান ও জনপ্রিয় অভিনেত্রী এই চরিত্র করতে আগ্রহী ছিলেন। নাম বলব না। তবে অনসূয়ার মধ্যে এমন কিছু একটা ছিল যাতে আমার বিশ্বাস ছিল যে এই চরিত্রে ওই সবচেয়ে বেশি উপযুক্ত।

এর আগে অনসূয়া অভিনয় করেছিলেন অঞ্জন দত্তর ‘ম্যাডলি বাঙালি’ সিনেমায়। সেই সিনেমাতে আবার ছিলেন অপরাজিতা আঢ্য। প্রাক্তন সহ-অভিনেত্রীর এই সাফল্যে গর্বিত অপরাজিতা। 

অভিনেত্রী বলেন, অনেকদিন বাদে কোনো বাঙালির পুরস্কার। অনসূয়ার সঙ্গে কাজ করেছিলাম। সে অনেক দিন আগের কথা। অতটা ভালো করে মনে নেই। বুলগেরিয়ান পরিচালক কনস্ট্যানটিন বোঁজ্যনভের সিনেমার জন্য এই পুরস্কার পেয়েছে সে। এ বিরাট পাওয়া। বাঙালিরা তো খুব কম পায়! বাঙালির যা প্রতিভা সেই তুলনায় স্বীকৃতি কম।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত