বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

কুপি জ্বালিয়ে বাইরে গেলেন মা, পুড়ল ঘুমন্ত শিশু

আপডেট : ০৪ জুন ২০২৪, ০৫:২৩ পিএম

বরগুনার তালতলীতে একটি বসতঘরে কুপি থেকে আগুন লেগে পাঁচ বছরের শিশুর মৃত্যু হয়েছে। খবর পেয়ে ফয়ার সার্ভিস আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় পুড়ে যাওয়া শিশুর মরহেদ উদ্ধার করা হয়।

গতকাল সোমবার (৩ জুন) রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার জয়াল ভাঙা এলাকায় কালাম গাজির বসতঘরে এ আগুনের ঘটনা ঘটে। নিহত জুনায়েদ নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের কালাম গাজীর ছেলে।

স্থানীয়র সূত্রে জানা যায়, উপজেলার নিশানবাড়িয়া এলাকার জয়াল ভাঙা এলাকা ঘূর্ণিঝড় রিমালের কারণে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন রয়েছে এক সপ্তাহ। বসতঘরে রাতের অন্ধকার মা কুপি জ্বালিয়ে বাইরে যান। কুপি থেকে ওই বসতঘরটিতে আগুন লাগে। এতে ঘরের মধ্যে আটকে পড়ে শিশু জুনায়েদ। এ সময় পরিবারের অন্য সদস্যরা বাহিরে ছিলেন। মুহুর্তেই বসতঘরটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে ঘর থেকে পুড়ে হয়ে মারা যাওয়া জুনায়েদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এদিকে জুনায়েদের মৃত্যুর খবর শুনে অসুস্থ হয়ে পড়েন তার বড় ভাই জুবায়ের (১৮)। পরে তাকে তালতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

মারা যাওয়া শিশুটির মা কুলছুম বেগম বলেন, ‘ঘূর্ণিঝড় রিমালের পর থেকে বিদ্যুৎ না থাকায় ঘরে কুপি জ্বালিয়ে রেখে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাইরে যাই। এ সময় ঘরে জুনায়েদ ও জাবের ঘুমানো ছিল। কিছুক্ষণ পরে ঘরে আগুন দেখতে পাই। আমার বুকের মানিক হারিয়ে গেছে। নিষ্ঠুর আগুন আমার সব কেড়ে নিয়েছে।’

তালতলী উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা সিফাত আনোয়ারা তুম্পা বলেন, খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ঘটনাটি অত্যন্ত মর্মান্তিক। উপজেলা প্রশাসন থেকে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে সহযোগিতা করা হবে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত