শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ভোটের ইতিহাস গড়লেন চা শ্রমিক খায়রুন

আপডেট : ০৭ জুন ২০২৪, ১১:৩০ পিএম

উপজেলা নির্বাচনে ভোটের ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন হবিগঞ্জের চা শ্রমিক খায়রুন আক্তার। এ পর্যন্ত  জেলার ৮ উপজেলায় অনুষ্ঠিত নির্বাচনে এত বিপুল সংখ্যক ভোট কোনো পদেই কোনো প্রার্থী পাননি।

চুনারুঘাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে সর্বোচ্চ ভোট পেয়েছেন এই নারী। এক লাখ ৪ হাজার ৪৮১টি বৈধ ভোটের মধ্যে তিনি পেয়েছেন ৭৬ হাজার ২৮১ ভোট।  নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীসহ সকল প্রার্থীই জামানত হারিয়েছেন।

পাহাড় টিলা আর ঘন সবুজে মাঝে বেড়ে ওঠা খায়রুন আক্তার দেশ রূপান্তরকে বলেন, পুরো চুনারুঘাট উপজেলার সমস্যা ও উন্নয়ন নিয়ে পরিষদে কথা বলব। চুনারুঘাট উপজেলা চা বাগান অধ্যুষিত এলাকা। এখানকার প্রায় ৪৫ হাজার ভোটারই চা শ্রমিক। আগে দায়িত্ব কী তা বুঝে নেওয়ার পর চা  শ্রমিকদের অধিকার আদায় ও প্রাকৃতিক পরিবেশ রক্ষার বিষয়টি প্রাধান্য দেব।

১৯৯৪ সালের ১৩ আগস্ট মজিদ মিয়া ও মল্লিকা খাতুনের ঘরে জন্ম নেন খায়রুন। তারা ৩ বোন ১ ভাইয়ের মধ্যে তিনি দ্বিতীয়। চুনারুঘাট অগ্রনী উচ্চ বিদ্যালয়ে দশম শ্রেণিতে লেখাপড়ার সময় ২০১২ সালে ক্যান্সারে আক্রান্ত পিতা মজিদ মারা যান। অভাব অনটনের সংসারের হাল ধরতে বাধ্য হয়ে খায়রুনকে ডানকান ব্রাদার্সের মালিকানাধীন চানপুর চা বাগানের শ্রমিকের খাতায় নাম লিখতে হয়েছে ২০১৩ সালে। 

৫০ হাজার টাকা ঋণ করে নির্বাচনী যুদ্ধে নেমেছিলেন জানিয়ে খায়রুন বলেন, বাকি খরচের টাকা শ্রমিক ও সমর্থকরা ৫-১০ টাকা শুরু যে যত পারেন অর্থ দিয়ে করে সহযোগিতা করেছেন। নইলে দেশের সর্বনিম্ন (১৭০ টাকা) মজুরি দিয়ে নির্বাচনের বৈতরণী পার হওয়া সম্ভব হত না। 

বুধবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনের ফলাফলে দেখা যায়, খায়রুনের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীসহ ৪ জনই জামানত হারিয়েছেন। ওই উপজেলায় নির্বাচিত চেয়ারম্যান সৈয়দ লিয়াকত হাসান পেয়েছেন ৫২ হাজার ৮২৯ ভোট। 

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত