শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

সুপ্রিম কোর্টে ইন্টারন্যাশনাল জুডিসিয়াল কনফারেন্স অনুষ্ঠিত   

আপডেট : ০৮ জুন ২০২৪, ০৫:৫৩ পিএম

সুপ্রিম কোর্টে ইন্টারন্যাশনাল জুডিসিয়াল করফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ শনিবার সুপ্রিম কোর্ট অডিটরিয়ামে দ্বিতীয় দিনের কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়। সকালে ‘জুডিশিয়ারি অ্যাক্রোস দ্য বোর্ডার্স (২১ সেঞ্চুরি চ্যালেঞ্জেস অ্যান্ড এক্সপেরিয়েন্সেস ফ্রম দ্য হিমালয়াস অ্যান্ড বিউন্ড)’ শীর্ষক এই অনুষ্ঠানে নেপালের প্রধান বিচারপতি বিসম্ভর প্রসাদ শ্রেষ্ঠা, ভুটানের হাইকোর্টের বিচারপতি লোবজাং  রিনজিন ইয়ারগে অংশ নেন। দ্বিতীয় দিনের সম্মেলনের উদ্বোধন করেন প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান। তিনি ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে ভুটান ও নেপাল কর্তৃক বাংলাদেশকে স্বাধীনতার স্বীকৃতিদানের ইতিহাস স্মরণ করিয়ে দেন। 

পিপলস জুডিসিয়ারি সম্পর্কে প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি জুডিসিয়ারির এই ধারণাটি এমন একটি ধারণা যা সংখ্যালঘুসহ সকল নাগরিকের সমান প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করে এবং সংবিধান অনুযায়ী তাদের অধিকারগুলো রক্ষা করে।’ 

মামলার জট ও করনীয় প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের আদালতগুলো ৪০ লাখ মামলার ভারে জর্জরিত। এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য আমরা গ্রাউন্ড- ব্রেকিং টেকনোলজিক্যাল ইনোভেশন সিস্টেম’র উপর ফোকাস করছি এবং মামলা নিষ্পত্তির জটিলতাগুলো সমাধানের চেষ্টা করছি। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, ‘বাংলাদেশ সরকার বিচার বিভাগের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী এবং তা  বাস্তবায়নে বদ্ধ পরিকর। সংবিধান অনুযায়ী ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠায় সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। আর তাই দেশে আজ আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। 

আইনমন্ত্রী আরও বলেন, এই কনফারেন্স দক্ষিণ এশিয়ার বিচারব্যবস্থার জন্য একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ প্ল্যাটফর্ম যা নিজেদের মধ্যে সংলাপে অন্তর্ভূক্ত হওয়া, ক্রস বর্ডার ঐক্য গড়ে তোলা এবং এবং বৃহত্তর সহযোগিতার ভিত্তি স্থাপন করবে। 

ভুটানের হাইকোর্টের বিচারপতি লোবজাং রিনজিন ইয়ার্গে বলেন, ব্যক্তির মানবাধিকার রক্ষায় আইনের শাসনের খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এটি শক্তিশালী গণতন্ত্রের মূলভিত্তি। দুটি গুরুত্বপূর্ণ মূলনীতি উল্লেখ করে তিনি বলেন, কেউ আইনের উর্ধ্বে নয় এবং সকলেই আইনের সমান আশ্রয় লাভের অধিকারী। 

অনুষ্ঠানে  আরও বক্তব্য দেন রাখেন আপিল বিভাগের বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন, চট্টগ্রাম  বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক মো. জাকির হোসেন। বিকেলে সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরিন শারমীন চৌধুরী। 

 

 

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত