রোববার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

৫ দিনের রিমান্ডে তারেক রহমানের সাবেক এপিএস

আপডেট : ১০ জানুয়ারি ২০১৯, ০৫:১৬ পিএম

তারেক রহমানের সাবেক এপিএস মিয়া নূর উদ্দিন আহমেদ অপুকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

বৃহস্পতিবার সিআইডির তদন্ত কর্মকর্তা আশরাফুল ইসলাম মতিঝিল থানায় মানি লন্ডারিং ও সন্ত্রাস বিরোধী আইনে দায়ের হওয়া মামলায় নুর উদ্দিন অপুকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০দিনের রিমান্ড প্রার্থনা করলে আদালত পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

সিআইডির পরিদর্শক আশরাফুল ইসলাম দেশ রূপান্তরকে জানান, মানি লন্ডারিং আইনে দায়ের হওয়া মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছিলাম। শুনানি শেষে আদালত পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

তিনি বলেন, এখনো আসামিকে আমাদের হেফাজতে নেয়া হয়নি। সুবিধাজনক সময়ে কারাগার থেকে আনা হবে।

মামলায় গ্রেপ্তার নূর উদ্দিন অপুসহ পাঁচ আসামি বর্তমানে কারাগারে রয়েছে। সুলতান মাহমুদ নামে অপর আসামি পলাতক রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে সারা দেশে কালো টাকা ছড়ানোর অভিযোগে র‌্যাব তারেক রহমানের এপিএস মিয়া নূর উদ্দিনসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করে।

এ ঘটনায় র‌্যাব ছয়জনের বিরুদ্ধে মতিঝিল থানায় মামলা করে।

মামলার প্রাথমিক তদন্ত কর্মকর্তা ও মতিঝিল থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই ) ফারুক হোসেন দেশ রূপান্তরকে জানান, গত ৪ জানুয়ারি মামলাটি সিআইডির কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ওই দিনই মামলার যাবতীয় কাগজপত্র সিআইডির তদন্ত কর্মকর্তার কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য একাদশ সংসদ নির্বাচনে 'কালো টাকা' ছড়িয়ে ফলাফল প্রভাবিত করার অভিযোগে রাজধানীর মতিঝিলে সাড়ে আট কোটি টাকা উদ্ধারের ঘটনায় করা মামলায় গ্রেপ্তার দেখান হয় শরীয়তপুর-৩ আসনের বিএনপি প্রার্থী অপুকে।

মানি লন্ডারিং মামলায় এ বিএনপি প্রার্থী ছিলেন চার নম্বর আসামি।

গত ২৫   ডিসেম্বর মতিঝিলে র‍্যাবের বিশেষ অভিযানে সাড়ে ৮ কোটি নগদ টাকা, ১০ কোটি টাকার চেক ও ধানের শীষের নির্বাচনী প্রচারপত্রসহ একটি প্রতিষ্ঠানের তিনজন গ্রেপ্তার হন, যাদের মধ্যে একজনের সঙ্গে ‘হাওয়া ভবনের’সম্পর্ক ছিল বলে র‍্যাব দাবি করেছে।

তখন ইউনাইটেড করপোরেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হায়দার আলী (২৪), মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) জয়নাল আবেদীন (৪৫) ও আলমগীর হোসেনকে (৩৮) গ্রেপ্তার করা হয়।

তাদের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৱসাধীন অবস্থায় অপুকে গ্রেপ্তার দেখান হয়।  এ মামলার আসামি মাহমুদুল  হাসান এখনও পলাতক আছে বলে জানিয়েছেন সিআইডির তদন্ত কর্মকর্তা।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত