সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

‘শুভেচ্ছা বিনিময় করতে আমন্ত্রণ, নির্বাচন নিয়ে সংলাপ নয়’

আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০১৯, ০৬:৪১ পিএম

পুনরায় নির্বাচন নিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সংলাপের দাবি হাস্যকর মন্তব্য করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, শুভেচ্ছা বিনিময় করতেই রাজনৈতিক দলগুলোকে আমন্ত্রণ জানানো হবে।

আগামী ১৯ জানুয়ারির সমাবেশের প্রস্তুতি নিয়ে রোববার আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমন্ত্রণ জানানোর ভেতর সংলাপ নিয়ে কোনো বিষয় নেই। নির্বাচন নিয়ে সারা বিশ্ব কোথাও থেকে কোনো অভিযোগ আসেনি, সমস্যা নেই। গণতান্ত্রিক বিশ্ব নির্বাচন নিয়ে কোনো প্রশ্ন তোলেনি। নির্বাচন নিয়ে সংলাপের দাবি হাস্যকর।’

শনিবার দলের এক যৌথ সভায় ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেছিলেন, ‘সংলাপ হবে আবারও। সব রাজনৈতিক দলকে গণভবনে আমন্ত্রণ জানানো হবে, আপ্যায়ন করা হবে।’

একদিন বাদেই আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমাদের নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্বাচন পরবর্তী শুভেচ্ছা বিনিময়ের জন্যই তাদের আমন্ত্রণ জানাবেন, কোনো সংলাপ নয়।’

এদিকে সংলাপের বিষয়ে দুপুরে সিলেটে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাংবাদিকদের বলেন,  ‘রাজনৈতিক দলের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সংলাপে বিগত নির্বাচন বাতিলের এজেন্ডা থাকলে অংশগ্রহণ করবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।’

বর্ধিত সভায় ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা এতটা ঐক্যবদ্ধ ছিলাম। তাই বিজয় নয়, মহাবিজয় অর্জন করেছি। এ বিজয়কে সংহত করতে চাইলে আগে দলকে গোছাতে হবে। আমি জানি এ সমস্যা মহানগরেই আছে, সারাদেশেই আছে। এ দুর্বলতা এড়াতে পারলে আওয়ামী লীগ আর কখনো হারবে না।

এসময় হাইকোর্টের নির্দেশে স্থগিত থাকা ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র নির্বাচন অতিসত্তর অনুষ্ঠিত হবে বলেও আইনজীবীদের উদ্ধৃতি দিয়ে জানান তিনি।

সমাবেশ সফলের আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘১৯ তারিখ একটা বিজয় সমাবেশ আমরা করতে যাচ্ছি। এ বিজয় অর্জিত হয়েছে অনেক আন্দোলন সংগ্রামের পর। এ বিজয়ের রূপকার আমাদের নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা শেখ হাসিনা।’

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাতের সভাপতিত্বে বর্ধিত সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি, আবদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন, আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আবদুর সবুর, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত