শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

যুবলীগ নেতার সন্ধান দাবীতে নাটোরে বিক্ষোভ অব্যাহত

আপডেট : ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১১:৩৩ পিএম

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নাটোর সদরে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী জামিল হোসেন মিলনের সন্ধান দাবিতে মাথায় কাফনের কাপড় বেঁধে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে স্বজন ও দলের নেতা কর্মীরা।

রোববার বিকেলে শহরের তালতলার হাফরাস্তা মোড় থেকে একটি মিছিল শুরু হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে নাটোর প্রেসক্লাবের সামনে মহাসড়কে মানববন্ধনে অংশ নেন মিছিলকারীরা।

জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও বর্তমান জেলা যুবলীগের প্রস্তাবিত কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মিলন। গত শুক্রবার রাত ১টার দিকে বাড়ি থেকে অস্ত্রের মুখে তাকে গাড়িতে তুলে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

মিলনকে উদ্ধারের দাবিতে মানববন্ধনে বক্তব্য দেন নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সৈয়দ মুর্তজা আলী বাবলু, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন বিপ্লব, জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক দিলীপ কুমার দাস, জেলা কৃষক লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আবদুল ওয়াহাব এবং সদর উপজেলার সাধারণ সম্পাদক ও নাটোর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী প্রভাষক আনোয়ার হোসেন আনু।

বক্তারা নিখোঁজ মিলনকে সুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করে তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার আহ্বান জানান। বক্তব্যে মিলনের বাবা শহরের তালতলা হাফরাস্তা এলাকার এমদাদুল হক মিয়াজি জানান, তার ছেলেকে তুলে নেওয়ার পর থেকে গত তিন দিনে তিনি রাজশাহী বিভাগে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) প্রতিটি কার্যালয় এবং থানাগুলোতে খোঁজ নিয়ে ছেলের কোনো সন্ধান পাননি।

ঘটনার পর থেকে মিলনের সমর্থকেরা নিয়মিত নাটোর শহরে বিক্ষোভ মিছিল, হরতাল, মানববন্ধন, সড়ক অবরোধসহ নানা কর্মসূচি অব্যাহত রেখেছেন। স্থানীয় সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুলের প্রিয়ভাজন মিলন নিখোঁজ হওয়ায় চাপা আতঙ্ক আছে নাটোরে।

নাটোরের পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুন ও নাটোর র‌্যাব-৫ ক্যাম্পের কমান্ডার যায়েদ শাহরিয়ার জানান, তারা সব প্রযুক্তি কাজে লাগিয়ে নিখোঁজ মিলনের বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ ও তাকে উদ্ধারে সব ধরনের চেষ্টা চালাচ্ছেন। তবে অনেক প্রচেষ্টার পরও এখন পর্যন্ত মিলনের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত