মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

শরীয়তপুরে মাদকাসক্ত ছেলের হাতে বাবা খুন

আপডেট : ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০১:০৫ এএম

শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলায় বাবা রহিম ব্যাপারীকে (৫০) কুপিয়ে হত্যা করেছে মাদকাসক্ত ছেলে নাইম ব্যাপারী (২৩)। রোববার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে উপজেলার ভোজেশ্বর ইউনিয়নের আনাখন্ড গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘাতক ছেলে নাইমকে আটক করেছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার আনাখন্ড গ্রামের রহিম ব্যাপারীর ছেলে নাইম ব্যাপারী দীর্ঘদিন ধরে মাদক সেবন করে আসছিল। রহিম ব্যাপারীর তিন ছেলে দুই মেয়ের মধ্যে নাইম মেজো। প্রায় পাঁচ বছর যাবৎ নাইম মাদকাসক্ত। সম্প্রতি ছেলেটি মানসিক রোগে আক্রান্ত হয়ে পরে। রোববার বিকেলে নাইম বাবা রহিম ব্যাপারী সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়।

কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে ছেলে নাইম ব্যাপারী ধারালো দা দিয়ে গলায় কোপ দিয়ে বাবা রহিম ব্যাপারীর মাথা আলাদা করে দেয়। ঘটনাস্থলেই রহিমের মৃত্যু হয়। এ সময় মা পেয়ারা বেগম (৪৫) এগিয়ে আসলে তাকেও কুপিয়ে আহত করা হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় পেয়ারা বেগমকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

খবর পেয়ে পালং মডেল থানা পুলিশ ঘাতক নাইমকে আটক করে এবং মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে পাঠায়।

স্থানীয় ইউপি সদস্য ও একই গ্রামের লিটন দেওয়ান বলেন, ছেলেটি এক সময় মাদক সেবন করত। সম্প্রতি ছেলেটি মানসিক রোগে আক্রান্ত ছিল। পরিবারের সদস্যরা তাকে বিভিন্ন সময় শিকল দিয়ে বেঁধে রাখত। রোববার বিকেলে হঠাৎ করে বাবা-মা দুজনকে কুপিয়ে আহত করে। বাবা আবদুর রহিম ব্যাপারী ঘটনাস্থলেই মারা যায়।

পালং মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান জানান, নিহত রহিম ব্যাপারীর মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। তাছাড়া ঘাতক নাইমকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ছেলেটি ভারসাম্যহীন। তবে মাদকাসক্তের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত