সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

'শেখ হাসিনা দেশের সব মানুষকে নিয়ে সার্বক্ষণিক চিন্তা করেন'

আপডেট : ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৭:০৩ পিএম

প্রধানমন্ত্রী হাসিনা শেখ হাসিনা দেশের সব মানুষকে নিয়ে সার্বক্ষণিক চিন্তা করেন বলে জানিয়েছেন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা সুলতানা কামাল।

তিনি বলেছেন, তৃতীয় লিঙ্গের মানুষকে নিয়েও তিনি (শেখ হাসিনা) কথা বলেন। তাই এ সমস্যা মনে হয় না আর বেশি দিন থাকবে না।

শনিবার রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া কনফারেন্স হলে ইনস্টিটিউট অব ওয়েলবিইং বাংলাদেশের আয়োজনে ‘সমাজের বৈচিত্রতার গুরুত্ব: বর্তমান ও ভবিষ্যৎ ’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন সুলতানা কামাল।

এ মানবাধিকার কর্মী আরো বলেছেন, দেশ আজ স্বল্পোন্নত থেকে মধ্যম আয়ের দেশের যোগ্যতা অর্জন করেছে। কিন্তু সমাজের পিছিয়ে থাকা জনগোষ্ঠী বিশেষ করে প্রতিবন্ধী, নারী ও তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের অধিকার নিশ্চিত না হওয়ায় সামাজিক ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে আমরা পিছিয়ে রয়েছি।

তিনি বলেছেন, ধর্ম, বর্ণ ও জাতি নির্বিশেষে সমান অধিকার নিশ্চিত করা রাষ্ট্রের অন্যতম দায়িত্ব ও কর্তব্য। তাই তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের সমস্যাটা শুধু তাদের নয় আমাদের সবার সমস্যা।

পারিবারিক ও সামাজিকভাবে স্বীকৃত তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের সার্বিক সমস্যা বেশি দিন থাকবে না এমন আশাবাদ ব্যক্ত করে সুলতানা কামাল বলেছেন, যার যার সীমাবদ্ধতা পার হয়ে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের দিকে সহায়তার হাত বাড়াতে হবে। তাদের মন-মানসিকতাকে মানবিকতার দৃষ্টি দিয়ে দেখতে হবে। তিনি আরও বলেন,

তিনি বলেছেন, সমাজের পিছিয়ে থাকা মানুষের অধিকার সুরক্ষা ও শিক্ষা, স্বাস্থ্য কর্মসংস্থানসহ সব মৌলিক ও প্রয়োজনীয় অধিকার প্রতিষ্ঠা করার কার্যক্রমকে উৎসাহিত করতে বিশ্বব্যাপী নানামুখী পরিকল্পনা গ্রহণ করা হলেও কার্যত এসবের অধিকাংশই বাস্তবায়িত হয় না। এ কারণে সমাজের পিছিয়ে পড়া মানুষের যেসব সংকট দূর হওয়ার কথা কার্যত তা হয় না।  সাবেক এ উপদেষ্টা বলেন, দেশের পিছিয়ে পড়া সার্বিক সমস্যায় জর্জরিত মানুষদের এগিয়ে নিতে না পারলে দেশ সামনের দিকে এগোবে না।  এসডিজির লক্ষ্যে পৌঁছাতে অনেক দেরি হবে। দেশ তত দিন পিছিয়েই থাকবে। আর দেশ পেছালে এ দায়িত্ব পড়ে সবার ওপরে।

আলোচনা সভায় ডব্লিউবিবি ট্রাস্টের পরিচালক প্রশাসন গাউস পিয়ারী সভাপতিত্ব আরো উপস্থিত ছিলেন ইনস্টিটিউট অব ওয়েলবিইংয়ের ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী পরিচালক দেবরা ইফরইমসন, দলিত নারী ফোরামের সভাপতি মনি রানী দাস, সচেতন সমাজ সেবা হিজড়া সংঘের প্রেসিডেন্ট ইভান আহমেদ কথা প্রমুখ।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত