রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

গতবারের চেয়ে দ্বিগুণ বাজেট এবারের উপজেলা নির্বাচনে

আপডেট : ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৩:৩৮ এএম

পাঁচ ধাপে পঞ্চম উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে ৯১০ কোটি টাকার বাজেট চূড়ান্ত করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। পাঁচ বছরের ব্যবধানে উপজেলা নির্বাচনের ব্যয় বেড়ে গেছে দ্বিগুণের বেশি। ২০১৪ সালের উপজেলা নির্বাচনে সব মিলিয়ে ব্যয় হয়েছিল ৪০০ কোটি টাকার মতো।ইসি সচিবালয়ে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বাজেটে নির্বাচন পরিচালনা ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে ৭৪০ কোটি টাকা। যদিও এই টাকার অর্ধেকের বেশি ব্যয় হবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পেছনে। বাকি টাকা ব্যয় হবে নির্বাচন পরিচালনার ক্ষেত্রে। ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) পরিচালনা ও এ-সংক্রান্ত প্রশিক্ষণের জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে ১৭০ কোটি টাকা।ইসি কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ২০১৪ সালের নির্বাচনে প্রিসাইডিং, সহকারী প্রিসাইডিং ও পোলিং কর্মকর্তাদের পারিশ্রমিক হিসেবে যথাক্রমে ৩ হাজার, ২ হাজার ও ১ হাজার টাকা করে দেওয়া হয়েছিল। এবার দেওয়া হচ্ছে যথাক্রমে ৪ হাজার, ৩ হাজার ও ২ হাজার টাকা করে। এ ছাড়া নির্বাচনী মালামালের দাম বেড়ে গেছে। এ কারণে নির্বাচনী ব্যয় বেড়েছে।

এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের অতিরিক্ত সচিব মোখলেছুর রহমান দেশ রূপান্তরকে জানান, কিছুটা ব্যয় বেড়েছে। এটা অস্বাভাবিক না। পাঁচ বছরে গাড়ি-ঘোড়ার খরচ বেড়েছে, ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা বেড়েছে। এ ছাড়া পুলিশ র‌্যাব আনসারের পারিশ্রমিক বেড়েছেÑ তাই এই বাজেট।

ইসি এর মধ্যে পঞ্চম উপজেলা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে। তফসিল অনুযায়ী প্রথম ধাপে আগামী ১০ মার্চ ৮৭টি উপজেলায় এবং দ্বিতীয় ধাপে ১৮ মার্চ ১২৯টি উপজেলায় ভোটগ্রহণ করা হবে। ইসি সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ দ্বিতীয় ধাপের তফসিল ঘোষণা করতে গিয়ে বলেছেন, যথাযথ প্রস্তুতি না থাকায় প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপে ইভিএম ব্যবহার করা হবে না।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত