বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

এক যুগ পর পুনর্মূল্যায়ন হচ্ছে সিলেট নগরীর হোল্ডিং ট্যাক্স

আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০১:৩৯ এএম

দীর্ঘ প্রায় ১৩ বছর পর সিলেট নগরীর হোল্ডিং ট্যাক্স পুনর্মূল্যায়নের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এই দীর্ঘ সময়ে নগরীর বাসাবাড়ি, দোকানপাটের ভাড়া অনেক বৃদ্ধি পেলেও মালিকরা হোল্ডিং ট্যাক্স দিয়েছেন আগের হিসাবমতো। এ কারণে সিটি করপোরেশন বাড়তি আয় থেকে বঞ্চিত হয়েছে। এ অবস্থায় করপোরেশন কর্তৃপক্ষ হোল্ডিং ট্যাক্স পুনর্মূল্যায়ন (রি-অ্যাসেসমেন্ট) কাজ শুরু করেছে। গতকাল সোমবার সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী তার নিজের বাড়ির হোল্ডিং ট্যাক্স পুনর্মূল্যায়ন ফরম গ্রহণের মধ্য দিয়ে কার্যক্রমের উদ্বোধন করেছেন। এ সময় মেয়র বলেন, ‘অতীতে হোল্ডিং ট্যাক্স নিয়ে ভোটের রাজনীতি হয়েছে। করপোরেশনের নিজস্ব আয়ের এই বড় খাতটি গোঁজামিলে চলছে। এবার এ খাতে স্বচ্ছতা আনা হবে। বাসাবাড়ির মালিকরা করপোরেশনকে ন্যায্য ট্যাক্স যথাযথভাবে পরিশোধ করবেন। এতে নগরীর উন্নয়নও ত্বরান্বিত হবে।’ তিনি হোল্ডিং ট্যাক্স পুনর্মূল্যায়ন কাজে কোনো গাফিলতি-অনিয়ম সহ্য করা হবে না বলেও উল্লেখ করেন।

সিটি করপোরেশন সূত্র জানায়, গতকাল থেকে নগরীর ১, ২, ৪, ১৫, ১৭ ও ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে ৬টি টিমের সমন্বয়ে নতুন এবং পুরনো বাসাবাড়ির বিবরণ, জমির পরিমাণসহ বিস্তারিত বিবরণ প্রেরণের জন্য রি-অ্যাসেসমেন্ট ফরম বিতরণ শুরু হয়েছে। মালিকরা ফরম পাওয়ার পর তা পূরণ করে ৭ দিনের মধ্যে নগর ভবনের অ্যাসেসমেন্ট শাখায় জমা দেবেন। এ কার্যক্রম পর্যায়ক্রমে নগরীর ২৭টি ওয়ার্ডে চলবে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত