শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

সৌম্য-মাহমুদউল্লাহর সেঞ্চুরির পরও ইনিংস ব্যবধানের হার

আপডেট : ০৩ মার্চ ২০১৯, ০৯:৪৯ এএম

অনবদ্য সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন সৌম্য সরকার ও মাহমুদউল্লাহ। এরপরও দলকে ইনিংস ব্যবধানের হার থেকে বাঁচাতে পারলেন না তারা। রোববার হ্যামিল্টন টেস্টের চতুর্থ দিন শেষ সেশনের শুরুতে নিউ জিল্যান্ডের কাছে ইনিংস ও ৫২ রানে হারে বাংলাদেশ। 

সৌম্য-মাহমুদউল্লাহর দৃঢ়তায় এক পর্যায়ে মনে হচ্ছিল অতিথি দল অন্তত ইনিংস ব্যবধানের হার এড়াতে পারবে। ম্যাচটি নিয়ে যেতে পারবে পঞ্চম দিনে। কিন্তু কিউইদের আগুনে পেসের সামনে সেটা আর সম্ভব হলো না।

তবে চতুর্থ দিন বাংলাদেশের ব্যাটিং ছিল আশাব্যঞ্জক। আগের দিন অপরাজিত থাকা সৌম্য-মাহমুদউল্লাহ জুটি দিনের শুরু থেকেই রয়ে সয়ে ব্যাট চালান। পঞ্চম উইকেটে গড়েন ২৩৫ রানের কার্যকরী এক জুটি!

দলীয় ৩৬১ রানে এই ফাটল ধরে এই জুটিতে। ট্রেন্ট বোল্টের বলে বোল্ট হয়ে ফিরেন টেস্টে ক্যারিয়ারে প্রথম শতকের দেখা পাওয়া সৌম্য। প্যাভিলিয়নের পথ ধরার আগে ১৭১ বলে ২১ চার ও পাঁচ ছক্কায় করেন ১৪৯ রান!

সৌম্যর বিদায়ের ধাক্কা আর সামলাতে পারেননি বাংলাদেশ। বাকি সময়টায় একাই ব্যাট চালান মাহমুদউল্লাহ। টেস্টে চতুর্থ সেঞ্চুরি দেখা পাওয়ার পর ব্যক্তিগত ইনিংসটাকে রূপ দেন ক্যারিয়ার সেরা ইনিংসে। শেষ পর্যন্ত দলীয় ৪২৯ রানে টিম সাউথির বলে বোল্টের ধরা পড়েন মাহমুদউল্লাহ। ২২৯ বলে খেলা ডানহাতি এই ব্যাটসম্যানের ১৪৬ রানের ইনিংসটিতে রয়েছে ২১টি চার ও তিন ছক্কা!

কিউই পেসের সামনে শেষ পাঁচ ব্যাটসম্যানের কেউই দুই অঙ্ক স্পর্শ করতে পারেননি।

নিউ জিল্যান্ডের বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে সফল ট্রেন্ট বোল্ট। ১২৩ রানে পাঁচ উইকেট নেন তিনি। তিনটি উইকেট নেন টিম সাউথি। দুটি উইকেট নেইল ওয়াগনার।

প্রথম ইনিংসে ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকানোয় ম্যাচ সেরার পুরস্কারটি নিউ জিল্যান্ডের অধিনায়ক কেইন উইলিয়ামসন।

দল দুটির মধ্যকার সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হবে ৮ মার্চ, ওয়েলিংটনে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত