সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

পাওনা টাকা চাওয়ায় মা-মেয়েকে কুপিয়ে আহত করলেন ইউপি সদস্য

আপডেট : ০৪ মার্চ ২০১৯, ০৪:২৫ পিএম

পাওনা টাকা চাওয়ায় বরগুনা সদর উপজেলার পাতাকাটা গ্রামের মা-মেয়েসহ তিন নারীকে কুপিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে ইউপি সদস্য মো. ইলিয়াছের বিরুদ্ধে। আহতরা হলেন- সুমনা, তার মা রুনা বেগম ও মামি হেলেনা। আহতদের উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আহত ও স্থানীয়রা জানান, রবিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে সুমনার বাড়িতে মেম্বর ইলিয়াছের নেতৃত্বে ১০-১২ জনের একটি সন্ত্রাসী দল গিয়ে হামলা চালিয়ে মা-মেয়েসহ তিন নারীকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করা হয়। এর আগে পাওনা টাকা চাওয়ায় সকাল ১১ টার দিকে মেম্বর নিজেই সুমনাকে মারধর করে।

হাসপাতালের বেডে শুয়ে আহত সুমনা অভিযোগ করেন, গত ইউপি নির্বাচনে ইলিয়াছ মেম্বর আমার মায়ের কাছ থেকে তিন লাখ টাকা ধার নেন। সেই টাকা আজ কাল দেবে বলে ঘুরাতে থাকেন তিনি। এরপর রবিবার সকালে আমি তার বাড়িতে গিয়ে টাকা চাইলে তিনি আমাকে মারধর করেন।

সুমনা আরও অভিযোগ করেন, সকালে টাকা চাওয়ার কারণে রাতে ইলিয়াছ মেম্বারের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী সজিব, সুজন, সাগর, সাইফুল, রাব্বি, রাকিব, আরিফ ও রিয়াজসহ ১০-১২ জনের একটি সন্ত্রাসী বাহিনী আমাদের বসতঘরে হামলা চালায়। এ সময় আমার মা ও মামিকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করে। ইলিয়াছের ছুরির আঘাতে আমার মাথা কেটে যায়। পরে স্থানীয় এলাকাবাসী আমাদের উদ্ধার করে বরগুনা হাসপাতালে ভর্তি করান।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত বদরখালী ইউনিয়ন যুবদলের আহ্বায়ক ও ইউপি সদস্য ইলিয়াছের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, সকল অভিযোগ মিথ্যা বানোয়াট। কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করার বিষয়ে জানতে চাইলে পরে আপনাদের সাথে দেখা করব বলে দ্রুত ফোনটি কেটে দেন। পরবর্তীতে পুনরায় যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি আর ফোন রিসিভ করেননি।

বরগুনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবির মোহাম্মদ হোসেন জানান, এ ঘটনায় কোনো লিখিত অভিযোগ থানায় আসেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত