শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

চাঁদাবাজি ও হত্যা চেষ্টার মামলায় কাউন্সিলর ২ ভাই কারাগারে

আপডেট : ০১ নভেম্বর ২০২০, ০৬:৫৭ পিএম

ঝালকাঠিতে চাঁদাবাজি ও হত্যা চেষ্টা মামলায় কাউন্সিলর আপন দুই ভাই শাহ আলম খান ফারসু ও  হুমায়ুন কবির খানসহ ছয়জনকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

রবিবার দুপুরে ঝালকাঠি সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক এ এইচ এম ইমরানুর রহমানের আদালতে উপস্থিত হয়ে জামিনের জন্য আবেদন জানালে বিচারক আসামিদের জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। শাহ আলম খান ফারসু ও  হুমায়ুন কবির খান ঝালকাঠি পৌরসভার ৬নং ও ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৯ সালের ১১ ডিসেম্বর আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পালবাড়ি এলাকার ইদ্রিস শরীফ ও তার ভাই ইলিয়াস শরীফকে কুপিয়ে আহত করে আপন দুই ভাই ঝালকাঠি পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শাহ আলম খান ফারসু ও ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হুমায়ুন কবির খান, কিফায়েত নগর এলাকার বাসিন্দা খবির ব্যাপারী, রিয়াজ মৃধা, খলিল তালুকদার এবং হাবিবুল হাসান সহ ছয় আসামি।

একই দিন সদর উপজেলার কৃত্তি পাশা এলাকার মজিবুর রহমানের পুত্র ঠিকাদার নাইম আহমেদের কাছে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন এবং মারধর করেন কাউন্সিলর দুই ভাই শাহ আলম খান ফারসু ও  হুমায়ুন কবির খানসহ আসামিরা।

ঘটনার পরের দিন ১২ ডিসেম্বর ইদ্রিস শরীফ ও নাঈম আহম্মেদ ঝালকাঠি সদর থানায় হত্যা চেষ্টা ও চাঁদাবাজির আলাদা দুটি মামলা করেন। মামলার পর থেকে আসামিরা পলাতক ছিল।

রবিবার আসামিরা বিচারক এ এই এম ইমরানুর রহমানের আদালতে উপস্থিত হয়ে জামিনের জন্য আবেদন জানালে বিচারক আসামিদের জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত