শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

দুর্নীতির অভিযোগে অস্ট্রেলিয়ার এক মুখ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ

আপডেট : ০১ অক্টোবর ২০২১, ০৭:০৮ পিএম

বন্ধুকে প্রকল্প দেওয়ার অভিযোগে অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস অঙ্গরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী গ্ল্যাডিস বেরেজিক্লিয়ান আজ শুক্রবার সকালে পদত্যাগ করেছেন।

দুর্নীতির অভিযোগে তার বিরুদ্ধে তদন্তের ঘোষণা আসার পর পদত্যাগের সিদ্ধান্তের কথা জানান গ্ল্যাডিস বেরেজিক্লিয়ান।

এক সংবাদ সম্মেলনে সাবেক মুখ্যমন্ত্রী আবেগাপ্লুত কণ্ঠে বলেন, ‘আমি স্পষ্টভাবে বলতে চাই, আমি সব সময় সর্বোচ্চ স্তরের সততার সঙ্গে কাজ করেছি। ইতিহাস দেখবে, যাদের আমি সেবা করার বিশেষ সুযোগ পেয়েছিলাম তাদের জন্যে আমি আমার দায়িত্ব সততার সঙ্গেই পালন করেছি’।

পার্লামেন্ট থেকে নিউ সাউথ ওয়েলসের প্রিমিয়ার গ্ল্যাডিস বেরেজিক্লিয়ানের পদত্যাগ অস্ট্রেলিয়ার রাজনীতিতে ধাক্কা হিসেবে এলেও তা গত ১ বছরে দেশটিতে রাজনৈতিক দুর্নীতির তদন্তের সর্বশেষ ঘটনা।

ক্ষমতাসীন লিবারেল পার্টি নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যের জন্যে নতুন নেতা নির্বাচনের পরই তার পদত্যাগ কার্যকারিতা পাবে। গ্ল্যাডিস বেরেজিক্লিয়ান ছিলেন এই রাজ্যের ৪৫তম মুখ্যমন্ত্রী।

তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি তার সাবেক বয়ফ্রেন্ড ড্যারিল ম্যাগুইয়ারের ২টি প্রতিষ্ঠানকে সাড়ে ৫ মিলিয়ন ডলার অনুমোদন দিয়েছিলেন।

বেরেজিক্লিয়ান ও ম্যাগুইয়ারের মধ্যে ‘গভীর সম্পর্ক’ ছিল ২০১৫ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত।

রাজ্যের দুর্নীতিবিরোধী পর্যবেক্ষক আজ সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘সাবেক সাংসদ ড্যারিল ম্যাগুইয়ারের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সম্পর্ক এবং জনসাধারণের বিশ্বাস লঙ্ঘনের বিষয়ে তদন্ত করা হবে’।

তিনি আরও বলেন, ‘ব্যক্তিগত সুবিধার কারণে জনগণের সুবিধাকে ক্ষতিগ্রস্ত করা হয়েছে কিনা তা তদন্তের অন্যতম অংশ’।

তদন্ত কমিশন জানিয়েছে, ২০১৬ ও ২০১৭ সালে অস্ট্রেলিয়ান ক্লে টার্গেট অ্যাসোসিয়েশনের অনুদান তহবিল ও ২০১৮ সালে ওয়াগায় রিভারিনা কনজারভেটরিয়াম অব মিউজিকের অনুদান দেওয়ার বিষয়ে বেরেজিক্লিয়ানের বিরুদ্ধে তদন্ত করা হবে।

মুখ্যমন্ত্রী ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে দুর্নীতিকে প্রশ্রয় ও উৎসাহিত করেছেন কিনা কমিশন তাও খতিয়ে দেখবে।

আগামী ১৮ অক্টোবর থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে তদন্তের কাজ শুরু হবে। এর ১০ দিনের মধ্যে কমিশন তাদের চূড়ান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করবে।

গ্ল্যাডিস বেরেজিক্লিয়ানের বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগ প্রমাণিত হলে রাজ্য সংসদ থেকেও তাকে পদত্যাগ করতে হবে।

আজ সিডনিতে গ্ল্যাডিস বেরেজিক্লিয়ান সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমাকে রাতারাতি কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে। আমার রাজ্য এখন মহামারি মোকাবিলা করছে। আমি বিশ্বাস করি, পদত্যাগের জন্য অবশ্যই এটা ভালো সময় নয়। কিন্তু, আমি জানি না তদন্ত করতে কতদিন লাগবে’।

তিনি আরও বলেন, ‘এটা ঘোষণা করে আমার কষ্ট হচ্ছে যে, আমার কাছে মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করা ছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই’।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত