বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

সালমান খান ও তার বাবাকে হত্যার হুমকি

আপডেট : ০৬ জুন ২০২২, ০৩:৩৫ পিএম

হত্যার হুমকি পেলেন বলিউড সুপারস্টার সালমান খান ও তার বাবা সেলিম খান। সম্প্রতি অজ্ঞাতপরিচয়ের এক চিঠির মাধ্যমে মৃত্যুর হুমকির সম্মুখীন হয়েছেন তারা। সেই প্রেক্ষিতে মুম্বাইয়ের বান্দ্রা থানায় অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। ইতিমধ্যে যার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

সম্প্রতি পাঞ্জাবি গায়ক ও কংগ্রেস নেতা সিধু মুসেওয়ালাকে তার গাড়িতেই গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। একে-৪৭ থেকে ৩০ রাউন্ড গুলি চালিয়ে ঝাঁঝরা করে দেওয়া হয় এই গায়ককে। এই হত্যাকাণ্ডের মূল অভিযুক্ত হিসেবে উঠে আসছে লরেন্স বিষ্ণোইয়ের নাম। যার টার্গেটে আছে সালমানের নামও! আর তাই কোন রকম ঝুঁকি না নিয়ে ভাইজানের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে।

পুলিশের উচ্চপদস্থ এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ‘সালমান খানের সার্বিক নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। তার অ্যাপার্টমেন্টের চারপাশে দিনরাত ২৪ ঘণ্টা পুলিশি টহলের ব্যবস্থা করা হয়েছে, যাতে রাজস্থানের এই গ্যাং (বিষ্ণোইদের গ্যাং) সালমানের কিছু করতে না পারে।’

কেন এই গ্যাংয়ের টার্গেটে সালমানের নাম? তা জানতে পিছিয়ে যেতে হবে দু’দশক। বিষ্ণোই সম্প্রদায়ের কাছে পবিত্র বলে গণ্য করা হয় কৃষ্ণসার হরিণকে। কৃষ্ণসার হরিণের রক্ষাকর্তা বিষ্ণোই সম্প্রদায়ের অংশ লরেন্স। ১৯৯৮ সালে সালমান খানের উপর যোধপুরে ফিল্মের শুটিং চলাকালীন দুটি কৃষ্ণসার হরিণ হত্যার অভিযোগ রয়েছে। সেই সময় থেকে বিষ্ণোই সম্প্রদায়ের চক্ষুশূল সালমান। এর আগে বেশ কয়েকবার সালমান খানকে শার্প শুটার দিয়ে হত্যার ছক কষেছে লরেন্স বিষ্ণোই। ২০১৮ সালে প্রকাশ্যে যে জানিয়েছিল, ‘যোদপুরে সালমান খানকে আমরা হত্যা করব’।

২০২০ সালের ১৫ আগস্ট উত্তরখণ্ড থেকে গ্রেপ্তার করা হয় রাহুল ওরফে সাঙ্গা ওরফে বাবা সুরি নামের ২৭ বছরের শার্প শুটারকে। পুলিশি জেরায় সে স্বীকার করেছিল সালমান খানকে হত্যার ছক কষছিল তার দল। এমনকি সালমানের বাড়ি রেকি পর্যন্ত করেছিল লরেন্সের সহযোগীরা। – বলিউড হাঙ্গামা

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত