বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ক্রেডিট কার্ডে লেনদেন কমেছে বাংলাদেশিদের

আপডেট : ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৪১ পিএম

মাসের ব্যবধানে দেশের অভ্যন্তরে এবং বিদেশে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে অর্থ খরচ কমিয়েছেন বাংলাদেশি নাগরিকরা। এ ক্ষেত্রে দেশের অভ্যন্তরে খরচ কমেছে ৪ দশমিক ৫ শতাংশ আর বিদেশে কমেছে ৬ দশমিক ২০ শতাংশ। তবে একই সময়ে ক্রেডিট কার্ডের ব্যবহার বেড়েছে বিদেশিদের। বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

তথ্য বলছে, দেশে অবস্থানরত ও বেড়াতে আসা বিদেশিরা ফেব্রুয়ারি মাসে ক্রেডিট কার্ড দিয়ে খরচ করেন ২৪০ কোটি টাকার সমপরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা, আগের মাসে যা ছিল ১৮১ কোটি ৬০ লাখ টাকা। অর্থাৎ মাসের ব্যবধানে দেশের অভ্যন্তরে বিদেশিরা প্রায় সাড়ে ৫৮ কোটি টাকা বা ৩২ শতাংশের বেশি অর্থ ব্যয় করেছেন।

গত ফেব্রুয়ারিতে বাংলাদেশিরা দেশের অভ্যন্তরে খরচ করেছেন ২ হাজার ৫৫৮ কোটি ১০ লাখ টাকা। আগের মাসের চেয়ে যা ১২০ কোটি ৩০ লাখ টাকা বা ৪ দশমিক ৫ শতাংশ কম। আগের মাসে এর পরিমাণ ছিল ২ হাজার ৬৭৮ কোটি ৪০ লাখ টাকা। অন্যদিকে ফেব্রুয়ারিতে দেশের বাইরে গিয়ে বাংলাদেশিরা ৪৯৯ কোটি ১০ লাখ টাকা ক্রেডিট কার্ড দিয়ে পরিশোধ করেছেন বা তুলেছেন। এ অঙ্ক আগের মাসের চেয়ে ৩৩ কোটি টাকা বা ৬ দশমিক ২০ শতাংশ কম। গত জানুয়ারিতে তা ছিল ৫৩২ কোটি ১০ লাখ টাকা।

তালিকার শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক : বাংলাদেশে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে খরচ করা বিদেশিদের তালিকায় শীর্ষ রয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকরা। এ সময় লেনদেনের মধ্যে ৬৪ কোটি টাকা, ২৬ দশমিক ৬৫ শতাংশ খরচ করেন তারা। এরপর রয়েছেন যুক্তরাজ্যের নাগরিকরা। তারা ৩২ কোটি ৫০ লাখ টাকা (১৩.৫৬%) ব্যয় করেন। তালিকায় শীর্ষস্থানে থাকা ভারতের নাগরিকরা ২৩ কোটি ৭০ লাখ (৯.৮৬%), জাপান ১০ কোটি ১০ লাখ (৪.২১%), কানাডা ১০ কোটি (৪.১৫%), অস্ট্রেলিয়া ৭ কোটি ৯০ লাখ (৩.৩%) এবং আরব আমিরাতের নাগরিকরা ৭ কোটি টাকা (২.৯%) ব্যয় করেন।

গত ফেব্রুয়ারিতে বিদেশিরা সবচেয়ে বেশি ৩৭ দশমিক ৭১ শতাংশ খরচ করেন ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে। নগদ উত্তোলন করেন ২৪ দশমিক ৭১ শতাংশ, যোগাযোগে ১৭ দশমিক ১৬ শতাংশ এবং পোশাকে ৮ দশমিক ৮৬ শতাংশ অর্থ ব্যয় করেন।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, গত ফেব্রুয়ারিতে বাংলাদেশিদের খরচ করা বৈদেশিক মুদ্রার সর্বোচ্চ ২১ দশমিক ৭২ শতাংশই খরচ হয়েছে ভারতে। সেখানে ১০৮ কোটি ৪০ লাখ টাকার সমপরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা ব্যয় হয়েছে। আগের মাসের চেয়ে তা ১১ কোটি ৯০ লাখ টাকা বা ১২ দশমিক ৩৩ শতাংশ বেশি। গত জানুয়ারিতে দেশটিতে খরচ হয়েছিল ৯৬ কোটি ৫০ লাখ টাকার সমপরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা, যা ছিল খরচের ১৮ দশমিক ১৪ শতাংশ।

এরপরের অবস্থানে থাকা দেশ থাইল্যান্ডে ১২ দশমিক ২৩, যুক্তরাষ্ট্রে ১২ দশমিক ২০, ইউনাইটেড আরব আমিরাতে ১০ দশমিক ৩৯, সিঙ্গাপুরে ৬ দশমিক ৮৩ ও যুক্তরাজ্যে ৫ দশমিক ৯৩ শতাংশ ব্যয় হয়।

দেশের বাইরে গিয়ে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে সবচেয়ে বেশি ২৭ দশমিক ৬৪ শতাংশ অর্থ খরচ হয় ডিপার্টমেন্টাল স্টোরের কেনাকাটায়। এ ছাড়া বিভিন্ন ধরনের খুচরা পণ্য কেনায় ১৬, ওষুধে ১৩ দশমিক ৮৩, পোশাকে ৯ দশমিক ৪৪ এবং ৭ দশমিক ৯ শতাংশ অর্থ তোলা হয়েছে নগদ হিসেবে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত