মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

কোভিড-১৯ নিয়ে সংবাদ প্রকাশ 

৪ বছরের সাজা শেষ, মুক্তি পাচ্ছেন চীনা সাংবাদিক?

আপডেট : ১৩ মে ২০২৪, ০৫:৪৬ পিএম

চীনের উহানে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার প্রথম দিকে এ নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করায় ৪ বছরের কারাদণ্ড হয় চীনের নাগরিক সাংবাদিক ও মানবাধিকার আইনজীবি ঝাং ঝানের। আজ সোমবার তাঁর সাজার মেয়াদ শেষ হচ্ছে। তবে আজ কারাগার থেকে মুক্তি মিললেও আদৌ পুরোপুরি তার স্বাধীনতা ফিরে পাবেন কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি নিজেই। 

চীনের উহানে কোভিড-১৯ ছড়িয়ে পড়ার প্রথম দিকে যখন এটি মহামারি রূপ ধারণ করছিল উহানে তখন লকডাউন জারি করা হয়। ঠিক সেই সময়ে উহানের পরিস্থিতি বিশ্বের সামনে তুলে ধরেন সাংবাদিক ঝাং ঝান। এ কারণে তাকে কোভিড-১৯ এর হুইসেল ব্লোয়ার হিসেবে আখ্যা দিয়েছিল বিশ্ব মিডিয়া। 

এর জেরে ২০২০ সালের মে মাসে থাকে আটক করে  চীন প্রশাসন। গণউপদ্রব উস্কে দেওয়ার অভিযোগে সাংহাইয়ের একটি আদালত তাকে ৪ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেন। সোমবার তাঁর সাজার  মেয়াদ শেষ হচ্ছে। ফলে মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে তাঁর। তবে তিনি ঠিক কখন মুক্তি পাবেন তা জানায়নি প্রশাসন। 

সোমবার বিকেলে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে ঝাং কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন কিনা তা নিশ্চিত করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।
 
তবে কারাগার থেকে মুক্তি পেলেও তিনি তাঁর স্বাধীনতা ফিরে পাবেন কিনা তা নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন মানবাধিকার কর্মী ও ঝাংয়ের সমর্থকরা। এখনই ঝাংয়ের পুরোপুরি মুক্তি মিলবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন তার সাবেক আইনজীবি রেন কোয়ানিউ। তাঁর মতে, ঝাং-এর মুক্তির পরে সম্ভবত দুটি ঘটনা ঘটতে পারে। প্রথমটি হল তাকে বাড়িতে পাঠানো হতে পারে। অন্যটি হল, সংবেদনশীলতা বিবেচনায় তাকে আরও তিন মাসের জন্য ‘সফট জেইল’ (এক ধরনের বন্দি যেখানে কিছু বাড়তি সুবিধা দেওয়া হয়) এ পাঠানো হতে পারে। যেখানে তাকে বাইরের পৃথিবীর সঙ্গে যোগাযোগ করতে দেওয়া হবে না। 

চীনে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করা মানবাধিকার আইনজীবীরা বলছেন, ঝাং কারাগার থেকে বেরিয়ে গেলেও তাকে নিবিড় নজরদারিতে রাখতে পারে কর্তৃপক্ষ। 

সূত্র: সিএনএন। 

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত