মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

নায়ক ফারুক নেই এক বছর  

আপডেট : ১৫ মে ২০২৪, ০৩:৩৫ পিএম

দীর্ঘ সময় ধরে বিরল নিউরোলজিক্যাল রোগ জিবিএস (Guillain Barre Syndrome)-এর সঙ্গে লড়াই করছিলেন ঢালিউডের ‘মিয়া ভাই’ খ্যাত কিংবদন্তি অভিনেতা, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও ঢাকা-১৭ আসনের প্রাক্তন সংসদ সদস্য আকবর হোসেন পাঠান ওরফে ফারুক।

দেড় বছরের বেশি সময় ধরে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। এরপর গত বছরের আজকের এই দিনে (১৫ মে) সকাল সাড়ে ৮টায় তিনি মারা যান। তাকে হারানোর আজ এক বছর।

১৯৪৮ সালের ১৮ আগস্ট ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন ফারুক। তারুণ্যে ছাত্রলীগের সক্রিয় কর্মী হিসেবে স্বাধিকার আন্দোলনে জড়িয়ে পড়েছিলেন তিনি। ১৯৬৬ সালে বঙ্গবন্ধুর ডাকে ছয় দফা আন্দোলনে যোগ দেন। মুক্তিযুদ্ধ শুরুর আগেই পর্দায় অভিষেক হয় তার। ১৯৭১ সালে মুক্তি পায় তার অভিনীত প্রথম ছবি ‘জলছবি’। এইচ আকবর পরিচালিত এই ছবিতে তার বিপরীতে অভিনয় করেন বাংলা চলচ্চিত্রের মিষ্টি মেয়ে খ্যাত অভিনেত্রী কবরী। এরপর ১৯৭৩ সালে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্র খান আতাউর রহমানের পরিচালিত ‘আবার তোরা মানুষ হ’ ও ১৯৭৪ সালে নারায়ণ ঘোষ মিতার ‘আলোর মিছিল’ সিনেমায় অভিনয় করেন তিনি।

‘লাঠিয়াল’ সিনেমায় অভিনয়ের জন্য ১৯৭৫ সালে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান এ অভিনেতা। ২০১৬ সালে তাকে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের আসরে আজীবন সম্মাননা দেওয়া হয়।

তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য সিনেমার মধ্যে রয়েছে- ‘সারেং বৌ’, ‘লাঠিয়াল’, ‘সুজন সখী’, ‘নয়নমণি’, ‘মিয়া ভাই’, ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’, ‘সাহেব’, ‘দিন যায় কথা থাকে’, ‘সখী তুমি কার’, ‘কথা দিলাম’ ও ‘সূর্য গ্রহণ’ ইত্যাদি। ২০১৮ সালের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-১৭ আসন থেকে আওয়ামী লীগ থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত