শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

গর্ভে ছেলে নাকি মেয়ে জানতে স্ত্রীর পেট কাটায় স্বামীর যাবজ্জীবন 

আপডেট : ২৫ মে ২০২৪, ০৯:৫১ এএম

পুত্রসন্তান হবে নাকি কন্যাসন্তান, তা জানতে স্ত্রীর পেট কাস্তে দিয়ে চিরে ফেলেছিলেন স্বামী। সেই মামলায় শুক্রবার তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে ভারতের আদালত। খবর আনন্দবাজারের।

পুলিশ জানিয়েছে, অপরাধীর নাম পান্নালাল। সে উত্তরপ্রদেশের বদায়ুঁর সিভিল লাইন্সের বাসিন্দা। অভিযোগ আছে পুত্রসন্তান না হওয়ায় প্রায় দিনই স্ত্রী অনিতার সঙ্গে ঝামেলা করত পান্নালাল। পান্নালাল অনিতাকে ডিভোর্স দেওয়ার হুমকিও দিত। শুধু তাই নয়, অন্য নারীকে বিয়ে করার কথাও বলতেন পান্নালাল।

জানা গেছে, ২০২০ সালে স্ত্রীর গর্ভের সন্তান পুত্র না কন্যা তা জানার জন্য জোরাজুরি করতে থাকেন পান্নালাল। তাতে আপত্তি জানান অনিতা। এক পর্যায়ে তাঁর পেট কাস্তে দিয়ে চিরে ফেলেন পান্নালাল। সেই অবস্থায় কোনও রকমে পালিয়ে পাশের দোকানে কাজ করা তাঁর ভাইয়ের কাছে চলে যান অনিতা। আহত অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান ভুক্তভোগীর ভাই। অনিতা বেঁচে গেলেও তাঁর গর্ভস্থ সন্তানকে বাঁচানো যায়নি।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত