বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

জুকারবার্গ-ইলন মাস্ককে বড় স্বৈরশাসক বললেন নোবেলজয়ী মারিয়া

আপডেট : ২৮ মে ২০২৪, ০৪:৪৮ পিএম

ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী মার্ক জুকারবার্গ ও এক্সের প্রধান ইলন মাস্কের মতো প্রযুক্তিবিদরা বর্তমান সময়ের সবচেয়ে বড় স্বৈরশাসক বলে মন্তব্য করেছেন ২০২১ সালে শান্তিতে নোবেল জয়ী ফিলিপাইনের সাংবাদিক মারিয়া রেসা। র‌্যাপলার প্রধান রেসা ২০২১ সালে একজন রাশিয়ান সাংবাদিকের সঙ্গে নোবেল শান্তি পুরস্কার পান। ফিলিপিন্সের সাবেক প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতের্তে এবং তার কথিত মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধের বিষয়ে অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার জন্য আলোচিত ছিল র‌্যাপলার। 

দ্য গার্ডিয়ানের খবরে বলা হয়, মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধের নামে দুতের্তে যে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড চালিয়েছিলেন, তাই প্রকাশ্যে এনেছিল রেসার র‌্যাপলার। মার্কিন-ফিলিপিনো এই সাংবাদিক ফিলিপাইনের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তের প্রশাসনের সময় দায়ের করা অভিযোগের বিরুদ্ধে লড়াই করেছেন। তবে মার্ক জুকারবার্গ ও ইলন মাস্কের তুলনায় দুতার্তে ‘অনেক ছোট স্বৈরশাসক’ বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

যুক্তরাজ্যের পোউইস শহরে হে সাহিত্য উৎসবে অংশ নিয়ে মারিয়া রেসা বলেছেন, ‘জুকারবার্গ এবং মাস্ক প্রমাণ করেছেন আমাদের সংস্কৃতি, ভাষা কিংবা ভূগোল— সবক্ষেত্রে আমাদের মাঝে পার্থক্য থাকা সত্ত্বেও অনেক বেশি মিল রয়েছে। কারণ আমাদের সবাইকে একইভাবে পরিচালনা করা হচ্ছে। আমাদের অনুভূতি বদলে দেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম প্ল্যাটফর্মগুলোর। 

মারিয়া বলেন, প্রযুক্তি কোম্পানিগুলো মেরুকরণকে উস্কে দিচ্ছে। ভয়, ক্রোধ এবং ঘৃণার উদ্রেক করছে। তারা এটা একেবারে আমাদের ব্যক্তিগত স্তরে, সামাজিক স্তরেও করছে। যদি আপনার সন্তান থাকে, তাহলে পর্যাপ্ত বয়স না হওয়া পর্যন্ত তাদের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করতে দেবেন না। কারণ এটা এক ধরনের হালকা আসক্তিমূলক।

যুক্তরাষ্ট্র ও ইতালিতে চীনা মালিকানাধীন টিকটক নিষিদ্ধ করার প্রচেষ্টাকে স্বাগত জানিয়ে মারিয়া বলেন, কেবল টিকটক নয়, বরং আমাদের সব সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়া উচিত।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত