সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ঘুমন্ত স্ত্রী-সন্তানের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিলেন স্বামী

আপডেট : ০৬ জুন ২০২৪, ০৪:৩৬ পিএম

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে ঘুমন্ত স্ত্রী ও সন্তানের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে নেশাগ্রস্ত স্বামীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় দগ্ধ হেলেনা আক্তার (৩৬) ও তার ছেলে অন্তরকে (১১) বুধবার (৫ জুন) রাত ৮টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার (৪ জুন) দিবাগত রাত ১টার দিকে তাদের গায়ে আগুন দেওয়া হয় বলে ভুক্তভোগী হেলেনার ভাই ইমরান হোসেন জানিয়েছেন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে প্রথমে রাজৈর হাসপাতালে পরে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেন। পরে শরীরের ৫০ শতাংশ পুড়ে যাওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে প্রেরণ করেন।

মুকসুদপুর থানার ইন্সপেক্টর তদন্ত শীতল চন্দ্র পাল বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, স্বামীর দেওয়া আগুনে দগ্ধ হেলেনা ও তার সন্তানকে  ঢাকা মেডিকেলের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় মুকসুদপুর থানায় অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তাদের মধ্যে হেলেনার মুখমন্ডলসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গা দগ্ধ হয়েছে। আর তার ছেলের হাত ও পাসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গা দগ্ধ হয়েছে। দুজনই শঙ্কামুক্ত নন বলে চিকিৎসক জানিয়েছেন।

হেলেনার ভাই ইমরান জানান, আমার বোন হেলেনাকে মোচনা ইউনিয়নের ডুমুরিয়া গ্রামের ওসমান শেখের সাথে ১৪ বছর আগে বিয়ে দেই। বিয়ের পর থেকে সে আমার বোনকে বিভিন্ন সময় মারধর করে। নেশাগ্রস্ত হওয়ায় আমার বোন আমাদের বাড়ি গোহালা ইউনিয়নের মনিরকান্দি গ্রামে থাকে। মঙ্গলবার রাতে ছেলেকে নিয়ে ঘরে ঘুমিয়ে ছিল হেলেনা। রাত ১টার দিকে হেলেনার স্বামী প্রথমে জানালা দিয়ে তাদের ওপর পেট্রোল ছুড়ে মারে। এরপর আগুন দিয়ে পালিয়ে যায়। আমরা এর বিচার চাই।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত