বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ট্রেনে জানালার পাশে বসা নিয়ে মারামারি, যাত্রীর মৃত্যু

আপডেট : ০৬ জুন ২০২৪, ০৭:১৯ পিএম

নরসিংদীর রেলওয়ে স্টেশনে ট্রেনের জানালার পাশে বসা নিয়ে মরামারি ঘটনায় এক যাত্রীর মৃত্য হয়েছে। মঞ্জুর আহমেদ (৫৫) নামের এক যাত্রীর কিল-ঘুষিতে ঝুমুর কান্তি বাউল (৫২) নামের যাত্রীর মৃত্যু হয়।

আজ বৃহস্পতিবার (৬ জুন) সকালে নরসিংদী রেলস্টেশনের ঢাকা মেইল ট্রেনের ভেতরে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত যাত্রীকে ঢাকার কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে আটক করেছে রেলওয়ে পুলিশ।

নিহত যাত্রী ঝুমুর কান্তি বাউল নরসিংদী শহরের বীরপুরের এলাকার প্রত্যুত কুমার বাউলের ছেলে। অপরদিকে অভিযুক্ত আটক হওয়া যাত্রী চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডের মৃত হাফেজ মিয়ার ছেলে মঞ্জুর আহমেদ (৫৫)।

রেলওয়ে পুলিশ জানায়, ঝুমুর কান্তি বাউল রাজধানী ঢাকার মিরপুরের ডিএইচএস এলাকার ইনফেসন নামে একটি গার্মেন্টস কোম্পানির সিনিয়র মার্চেন্ডাইজার হিসেবে চাকরি করেন। প্রতিদিন তিনি নরসিংদীর বীরপুর এলাকার বাড়ি থেকে ঢাকা মেইল ট্রেনে গিয়ে অফিস করেন। বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা ২৫ মিনিটের দিকে ট্রেনটি নরসিংদী রেলস্টেশনে যাত্রাবিরতি দেয়। এসময় ঝুমুর কান্তি বাউল নরসিংদী থেকে ট্রেনের পেছনের বগিতে উঠেন। ট্রেনে উঠে তিনি জানালার পাশের  সিটে বসতে চাইলে সিটে থাকা মঞ্জুর নামে আরেক যাত্রী তাকে বাধা দেয়। তিনি হার্টের অসুস্থ রোগী বলে জানালেও মঞ্জুর কথা শোনেননি। এ নিয়ে দুজনের মধ্যে কথাকাটির এক পর্যায়ে সিটে বসা মঞ্জুরকে জানালার পাশ থেকে সরিয়ে দিতে তাকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেয়। ঝুমুর বাউল উঠে দাঁড়িয়ে ধাক্কা কেন মারলে সে কথা জানতে চাইলে মঞ্জুর ক্ষেপে গিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি মারতে থাকে। এতে ঘটনাস্থলেই গুরুতর আহত হন তিনি। পরে অন্য যাত্রীরা তাকে উদ্ধার করে ট্রেন থেকে নামিয়ে দিলে রেলওয়ে স্টেশনে উপস্থিত লোকজন তাকে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

আকাশ নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, সকালে স্টেশনে আমরা একজনকে ট্রেন থেকে ধরে নামাতে দেখি। তার অবস্থা খারাপ দেখে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখানে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঝুমুরের বাবা প্রত্যুত কুমার বাউল বলেন, আজকে সে বাড়ি থেকে অফিসের উদ্দেশ্যে বের হয়েছিল, আর বাড়ি ফিরল লাশ হয়ে। আমার অসুস্থ ছেলে ট্রেনে মারধর করে মেরে ফেলল। আমি অপরাধীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই।

নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার মো. মুসা বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। ইতিমধ্যে আসামিকে রেলওয়ে পুলিশ আটক করেছে।

নরসিংদী রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির উপ পরিদর্শক মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ বলেন, ঝুমুর বাউল হার্টের রোগী ছিলেন। বুকে কিল-ঘুষি লাগায় হয়তো তার মৃত্যু হয়েছে। আমরা সুরতহাল রিপোর্ট করে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ নরসিংদী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত মঞ্জুর আহমেদকে কমলাপুর থেকে আটক করেছে রেলওয়ে পুলিশ।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত