সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

কাঁচা বা রান্না নয়, বেশি উপকার পেতে যেভাবে খাবেন এই ৫ খাবার

আপডেট : ১৫ জুন ২০২৪, ০৯:৫১ পিএম

সুস্থ থাকার জন্য আমাদের খাবার খাওয়া জরুরি। কিছু খাবার আছে যা আমরা কাঁচা খাই, আবার এমন কিছু খাবার আছে যা রান্না করে খেতে হয়। কিছু কিছু খাবার এমনও আছে যা কাঁচা এবং রান্না দুইভাবেই খাওয়া যায়।

পুষ্টিবিদদের মতে, শুধুমাত্র স্বাদ দেখেই খাবার খাওয়া ঠিক নয়। বরং যেভাবে খেলে খাবার থেকে বেশি পুষ্টিগুণ পাওয়া যায় সেই পদ্ধতিতেই খাবার খাওয়া উচিত। তাদের ভাষায়, এমন কিছু জিনিস রয়েছে যা কেবল সিদ্ধ হওয়ার পরেই খাওয়া উচিত। কারণ এসব খাবারে যে পরিমাণে পুষ্টি আছে সিদ্ধ হওয়ার পরে সেগুলোর ভেতরের উপাদানগুলো কিছুটা পরিবর্তন হয়।

এছাড়া কিছু শাকসবজি এবং খাবার কাঁচা বা রান্নার পরিবর্তে সেদ্ধ করে খেলে বেশি উপকারী। এতে উপস্থিত ভিটামিন, খনিজ এবং অন্যান্য পুষ্টিগুণ সেদ্ধ করার সময় নিরাপদ থাকে। ফলে এতে উপস্থিত পুষ্টি যাতে নষ্ট না হয়, সেগুলো সঠিক পরিমাণে এবং সীমিত সময়ের জন্য পানিতে সেদ্ধ করা উচিত। যেমন:

আলু 
খোসা সহ আলু সেদ্ধ করা বেশি উপকারী, কারণ এতে উপস্থিত ভিটামিন সি এবং বি নষ্ট হয় না এবং ক্যালরিও কমে যায়।

রাঙা আলু
রাঙা আলু সিদ্ধ করে খেলে এতে উপস্থিত বিটা ক্যারোটিন সংরক্ষণ থাকে। এটি একটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা শরীরে ভিটামিন এ-তে রূপান্তরিত হয়। এটি চোখ, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এবং ত্বকের স্বাস্থ্.ত্বকের স্বাস্থ্যের জন্য ভাল।

ডিম
সেদ্ধ ডিম খেলে এতে উপস্থিত প্রোটিন হজম করা সহজ হয়। অনেকেই ডিম পোচ বা ভাজা করে খান। কিন্তু ডিম সেদ্ধ করে খেলে সবচেয়ে বেশি উপকার।

গাজর
অনেক গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে যে গাজর সেদ্ধ করলে,  কোষ প্রাচীর ভেঙ্গে যায়, যার ফলে আপনার শরীরের বিটা ক্যারোটিন শোষণ করা সহজ হয়। বিটা ক্যারোটিন শরীরে ভিটামিন এ-তে রূপান্তরিত হয়।

পালং শাক 
পালং শাক স্যালাডে খাওয়া উপকারী। এটি সেদ্ধ করে খেলে তবে এতে অক্সালেটের পরিমাণ কমে যায় এবং শরীর এতে উপস্থিত আয়রন এবং ক্যালসিয়ামকে আরও ভালভাবে শোষণ করতে সক্ষম হয়। 

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত