রোববার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

কুমিল্লায় নির্বাচনী সহিংসতায় আহত আ’লীগ নেতার মৃত্যু

আপডেট : ১০ জানুয়ারি ২০১৯, ১০:০৮ এএম

লাকসামে ৩০ ডিসেম্বর বিএনপি-জামায়াতের নির্বাচনী সহিংসতায় গুরুতর আহত বাকই দক্ষিণ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ফয়েজ উল্যাহ মারা গেছেন। ১০ দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে বুধবার রাত সাড়ে ৮টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

জানা গেছে, বাকই দক্ষিণ ইউপির কৈত্রা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের অদূরে স্থানীয় বিএনপির হামলায় গুরুতর আহত হন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ফয়েজ উল্যাহ।

ওইদিন সকালে তিনি ভোট দিয়ে কেন্দ্র থেকে বের হয়ে রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় আগে থেকে উৎপেতে থাকা বিএনপির সমর্থকরা তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে।

চিৎকার শুনে তার ছেলে এগিয়ে এলে তাকেও এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত করে। স্থানীয় লোকজন দুজনকে উদ্ধার করে প্রথমে পার্শ্ববর্তী বিজরা একটি হাসপাতালে প্রেরণ করেন। গুরুতর আহত ফয়েজ উল্যাহর অবস্থা সংকটাপন্ন দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক বাবা ও ছেলেকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে ফয়েজ উল্যাহর শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

সেখানে ১০ দিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় থাকার পর ফয়েজ উল্যাহ মারা যান। এর আগে ওই ঘটনায় লাকসাম থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছিল।

স্থানীয় সংসদ সদস্য এলজিআরডি মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম আওয়ামী লীগ নেতা ফয়েজ উল্যাহর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন।

তার মৃত্যুর সংবাদে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রণালয়ের নবগঠিত মন্ত্রী পরিষদের মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম পূর্বঘোষিত ১২ জানুয়ারি শনিবার লাকসাম পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সংবর্ধনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান স্থগিত করার নির্দেশ প্রদান করেন।

বুধবার রাতে মুঠোফোনে ফয়জুল্লাহর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন লাকসাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মনোজ কুমার পাল।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত