রোববার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ধর্ষণে অভিযুক্ত রোনালদোর ডিএনএ চেয়ে পরোয়ানা

আপডেট : ১১ জানুয়ারি ২০১৯, ০৩:৪৬ পিএম

২০০৯ সালে হোটেলের রুমে নিয়ে এক নারীকে ধর্ষণ মামলার তদন্ত প্রক্রিয়ায় ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর ডিএনএর নমুনা চেয়ে পরোয়ানা জারি করেছে লাস ভেগাস পুলিশ। তারকা এই ফুটবলারের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলার তদন্তে এই নির্দেশনাকে কড়া পদক্ষেপ হিসেবে দেখা হচ্ছে।

২০১৮ সালের শেষদিকে রোনালদোর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুলে আদালতের শরণাপন্ন হন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাথরিন মায়োরগা। গুরুতর অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত চলছিল। তদন্তের অঙ্গ হিসেবে এবার রোনালদোর ডিএনএ টেস্ট চাইল নেভাদার আদালত। তার বিরুদ্ধে ডিএনএ নমুনা সংগ্রহের ওয়ারেন্ট জারি করল লাস ভেগাস পুলিশ।

ধর্ষণের অভিযোগকারী ক্যাথরিন মায়োরগার পোশাকে পাওয়া ডিএনএ’র সঙ্গে পর্তুগিজ ফরোয়ার্ডের ডিএনএ’র মিল আছে কিনা দেখতে চায় মামলাটির তদন্ত সংশ্লিষ্টরা।

ইতালির বিচারিক কর্তৃপক্ষের কাছে রোনালদোর ডিএনএ’র নমুনা চেয়ে পরোয়ানা পাঠানো হয়েছে- ব্যাপারটি বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে জানায় লাস ভেগাস মেট্রোপলিটন পুলিশ বিভাগ। পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী ফুটবলার ইতালির অন্যতম সেরা দল ইউভেন্তুসের হয়ে খেলছেন।

বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, অন্য সব যৌন হয়রানির মামলায় যেসব ব্যবস্থা নেওয়া হয়, এই মামলাতেও একই ব্যবস্থা নিচ্ছে লাস ভেগাস মেট্রোপলিটন পুলিশ কর্তৃপক্ষ। এ কারণে ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে।

রোনালদোর আইনজীবী পিটার এস ক্রিস্টিয়ানসেন বিষয়টাকে স্বাভাবিক হিসেবেই দেখছেন।

“রোনালদো সবসময় বলেছেন, এখনও তার একই কথা, ২০০৯ সালে লাস ভেগাসে যা ঘটেছে সেটা পারস্পরিক সমঝোতায়। তাই অভিযোগকারীর পোশাকে ডিএনএ থাকা অবাক হওয়ার মতো কিছু নয়। আর তদন্তের অংশ হিসেবে পুলিশের এই অনুরোধ খুবই স্বাভাবিক।”

৩৪ বছর বয়সী মায়োরগার অনুরোধে গত অক্টোবরে নতুন করে এই ধর্ষণের অভিযোগের তদন্ত শুরু করে লাস ভেগাসের পুলিশ। তবে ৩৩ বছর বয়সী রোনালদো সবসময় ধর্ষণের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে আসছেন।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত