রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

জবিতে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের দফায় দফায় সংঘর্ষ

আপডেট : ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৩:৩৭ পিএম

প্রেমঘটিত কারণ ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) শাখা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়েছে। দুপক্ষই দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ক্যাম্পাসে মহড়া দিচ্ছে। একাধিক ককটেলের বিস্ফোরণও ঘটিয়েছে তারা।

রোববার সকাল সাড়ে ৮টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত এ সংঘর্ষ চলে। দুপক্ষ মুখোমুখি অবস্থান নেওয়ায় ক্যাম্পাসে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

ছাত্রলীগ সূত্রে জানা গেছে, প্রেমঘটিত কারণে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পক্ষের কর্মী তুহিনকে মারধর করেন সভাপতি পক্ষের কর্মীরা। পরে সম্পাদকের কর্মীরা একত্রিত হয়ে সভাপতি পক্ষের কর্মী নয়ন ও রিফাতকে মারধর করে।

ওই ঘটনার জের ধরে আজ সকাল সাড়ে ৮টা থেকে ক্যাম্পাসে দুই পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

জবি ছাত্রলীগের সভাপতি পক্ষের কর্মীরা ক্যাম্পাসের মধ্যে অবস্থান নিয়েছে। আর সাধারণ সম্পাদক পক্ষের কর্মীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান গেটের কাছে অবস্থান নিয়েছে। কিছুক্ষণ পরপরই দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া চলছে।

ক্যাম্পাসের এমন পরিস্থিতিতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন শিক্ষার্থীরা। তারা বলেন, এখন আমাদের ক্লাস করার সময়, কিন্তু ক্যাম্পাসে এমন মারমুখী অবস্থা থাকায় প্রবেশ করতে পারছি না।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষার্থী বলেন, ছোট এই ক্যাম্পাসে আমরা সাধারণ শিক্ষার্থীরা শান্ত পরিবেশে চলাফেরা করতে চাই। কিন্তু ক্ষমতাসীন ছাত্রসংগঠনের অন্তঃকোন্দলে ক্যাম্পাসে স্বাভাবিক পরিবেশ বিনষ্ট হচ্ছে। সাধারণ শিক্ষার্থীরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে।

এ বিষয়ে জানতে জবি ছাত্রলীগের সভাপতি তরিকুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক শেখ জয়নুল আবেদীন রাসেলকে ফোন করা হলেও তারা রিসিভ করেননি।

অন্যদিকে জবি প্রক্টর ড. নূর মোহাম্মদকে ফোন দেওয়া হলে তিনি কলটি কেটে দেন।

এ প্রসঙ্গে কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মশিউর রহমান বলেন, ক্যাম্পাসে পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা রোধে ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

এখন পর্যন্ত থানায় কোনো অভিযোগ আসেনি বলেও জানান তিনি।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত