মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

পাখি দেখানোর নামে শিশুকে কালভার্টে নিয়ে ধর্ষণ যুবকের

আপডেট : ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০১:১৮ পিএম

লক্ষ্মীপুরে পাখির বাসা দেখাতে নিয়ে সাত বছর বয়সী এক শিশুকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার ১২ দিন পর মঙ্গলবার (৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে ভুক্তভোগীর মা বাদী হয়ে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এ মামলার একমাত্র আসামি ফজলে রাব্বি (১৮) সদর উপজেলার কুশাখালি ইউনিয়নের ছিলাদী গ্রামের সাইফুল ইসলাম হারুনের ছেলে।

জানা গেছে, শিশুটি স্থানীয় একটি মাদ্রাসার শিশু শ্রেণির ছাত্রী।

ধর্ষণের শিকার শিশুর বাবা জানান, গত শুক্রবার (২৫ জানুয়ারি) দুপুরে উপজেলার কুশাখালি ইউনিয়নে একটি কালভার্টের নিচে নিয়ে তার মেয়েকে ধর্ষণ করেন রাব্বি। রাব্বি শিশুকে পাখির বাসা থেকে বাচ্চা নিয়ে দেওয়ার কথা বলে কৌশলে ঘটনাস্থলে নিয়ে যায়। এরপর তাকে ধর্ষণ করে।

তিনি বলেন, ‘মেয়েকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা প্রদান করলেও পরে শারীরিক অবস্থার উন্নতি না হলে তাকে নোয়াখালীর একটি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করি।’

কুশাখালি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. নুরুল আমিন বলেন, ‘ঘটনাটি জানার পর শিশুর বাবাকে মামলা করার পরামর্শ দেই এবং শিশুটিকে দ্রুত চিকিৎসার জন্য বলি। বিষয়টি আমি দাসেরহাট পুলিশকেও অবগত করেছি।’

স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা মহিন উদ্দিন বলেন, আমি ঘটনাটি জানতে পেরে শিশুর বাবার সঙ্গে দেখা করি। এ সময় মেয়ের বাবা বিষয়টি স্থানীয়ভাবে সমাধান করে নেবেন বলে জানান।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও দাসের হাট পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ পরিদর্শক মো. মফিজ উদ্দিন জানান, ধর্ষণের ঘটনাটি স্থানীয়ভাবে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পেয়েছি। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নির্দেশক্রমে মামলাটি তদন্ত করা হয়।

তিনি বলেন, শিশুটির চিকিৎসা চলছে। এ ব্যাপারে চন্দ্রগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা হয়েছে। আসামি বর্তমানে পলাতক রয়েছে। গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত