শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ইচ্ছে করে হলুদ কার্ড দেখে দুই ম্যাচ নিষিদ্ধ রামোস

আপডেট : ০১ মার্চ ২০১৯, ০৩:৪৯ এএম

কৌশলটা কাজে লাগল না সার্জিও রামোসের। বরং ‘অতি চালাকের গলায় দড়ি’র প্রবাদটা মিলে গেল রিয়াল মাদ্রিদ অধিনায়কের বেলায়।

চ্যাম্পিয়নস লিগে আয়াক্সের বিপক্ষে শেষ ষোলোর প্রথম লেগে ইচ্ছে করে হলুদ কার্ড দেখেছিলেন রামোস। যাতে দ্বিতীয় লেগে খেলতে না পারলেও কোয়ার্টারে বা পরের ধাপে নিষিদ্ধ হওয়ার ভয় না থাকে। কিন্তু ইচ্ছে করে ফাউলের বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় উয়েফা দুই ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ করেছে রিয়াল মাদ্রিদ অধিনায়ককে।

আয়াক্সের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগের প্রথম লেগে ২-১ গোলে জেতে রিয়াল। ১-১ সমতায় থাকা ম্যাচে ৮৭ মিনিটে দ্বিতীয় গোলের দেখা পায় দলটি। প্রতিপক্ষের মাঠে জয় নিশ্চিত ধরেই ম্যাচের ৮৯ মিনিটে ক্যাসপার ডোলবার্গকে ফাউল করে হলুদ কার্ড দেখেন রামোস।

আগেই তার নামের পাশে ছিল তিনটি হলুদ কার্ড। চার হলুদ কার্ড হয়ে যাওয়ায় পরের ম্যাচের জন্য হন নিষিদ্ধ। তাতে বড় একটা লাভই হওয়ার কথা ছিল রিয়াল ও রামোসের। প্রথম লেগে হলুদ কার্ড না পেয়ে দ্বিতীয় লিগে পেলে রামোসকে নিষিদ্ধ হতে হতো কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে। বা পরের ধাপগুলোতে কার্ড দেখলে সেটা দলের জন্য আরো ক্ষতির হতো।

রামোস তাই শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগে ইচ্ছে করেই নিষেধাজ্ঞা বরণ করে নিতে চেয়েছেন। যাতে দল পরের ধাপগুলোতে গেলে মুক্তভাবে সার্ভিস দিতে পারেন। কেননা, চার হলুদ কার্ডের জন্য শাস্তি ভোগ করলে পরের ম্যাচ থেকে আগের কার্ডগুলো আর গণনা হয় না।

কিন্তু এই কাণ্ডে তদন্তের পর উয়েফা রামোসকে বাড়তি আরো এক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ করেছে। অর্থাৎ শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগে নিষিদ্ধ তো থাকবেনই, রিয়াল কোয়ার্টার ফাইনালে উঠলে খেলতে পারবেন না প্রথম লেগের ম্যাচটিও।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত