রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

সাত মাস পর খোলার প্রথম দিনেই পর্যটনকেন্দ্রে ভিড়

আপডেট : ০২ নভেম্বর ২০২০, ০২:২৭ এএম

করোনাভাইরাসের মহামারীর কারণে সাত মাসের বেশি সময় বন্ধ থাকার পর গতকাল রোববার থেকে পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে বিশ^খ্যাত ম্যানগ্রোভ ফরেস্ট সুন্দরবন, দক্ষিণ চট্টগ্রামের বাঁশখালী ইকোপার্ক ও মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান। সকাল থেকে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা পর্যটকরাও ভিড় করছেন প্রকৃতির সৌন্দর্য উপভোগ করতে। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর : 

মোংলা (বাগেরহাট) : সুন্দরবন উন্মুক্ত করে দেওয়া হলে সকাল থেকে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা পর্যটকরা ভিড় করেন মোংলার পিকনিক কর্নারে। সেখান থেকে বিভিন্ন ধরনের নৌযানে করে তারা যাচ্ছেন সুন্দরবন ভ্রমণে। তবে বনের করমজলে সবচেয়ে বেশি ভিড় দেখা গেছে। দর্শনার্থীদের করোনা বিধিনিষেধ মানাতে বিভিন্ন উদ্যোগে ব্যস্ত হয়ে পড়েন বনপ্রহরীরা।

বাঁশখালী (চট্টগ্রাম) : বিশাল এলাকাজুড়ে আঁকাবাঁকা ও দৃষ্টিনন্দন লেক এবং সবুজ বনানীর বাঁশখালী ইকোপার্ক খুলে দেওয়া হয়েছে। করোনাভাইরাসের কারণে গত ১৮ মার্চ থেকে পার্কে দর্শনার্থীদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করে তা বন্ধ করে দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন ইকোপার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনিসুজ্জমান শেখ।

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) : উন্মুক্ত করে দেওয়া হলে সকাল থেকেই দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পর্যটক আসছেন লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানে। তবে, শুরুতে পর্যটক উপস্থিতি কম থাকায় লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের ভেতরের দোকান বন্ধ দেখা গেছে। দর্শনার্থীদের করোনার বিধিনিষেধ মানাতে নানা ধরনের সহায়তায় ব্যস্ত থাকতে দেখা গেছে বনপ্রহরীদের। শুধু লাউয়াছড়াই নয়, পর্যটকরা সেখান থেকে যাচ্ছেন মাধবপুর লেক, বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমানের স্মৃতিসৌধ, চা-বাগানসহ কমলগঞ্জ ও শ্রীমঙ্গলের বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে।

লাউয়াছড়ার টিকিট কালেক্টর শাহিন মিয়া দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘প্রথম দিন আজ (গতকাল রবিবার) প্রায় ১৮০ জনের মতো পর্যটক ঘুরতে এসেছেন লাউয়াছড়ায়। আমরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে পর্যটকদের টিকিট দিচ্ছি। মাস্কবিহীন কোনো পর্যটককে প্রবেশের টিকিট দেওয়া হয়নি।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত