বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

একই মণ্ডপে দুই প্রেমিকাকে বিয়ে করলেন যুবক

আপডেট : ২১ জুন ২০২২, ০২:০৭ পিএম

একই মণ্ডপে দুই প্রেমিকাকে বিয়ে করলেন এক যুবক। এ ঘটনায় দুই নারীর পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ আপত্তিও করেনি। ওই যুবকও জানান, এদের কাউকে ছাড়তে চান না তিনি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, ঝাড়খণ্ডে এই অভিনব বিয়ের আসর বসেছিল।

সন্দীপ ওরাওকে ভালোবাসতেন কুসুম লাকড়া ও স্বাতী কুমারী। রাজ্যের লোহারদাগার ভান্দ্রা ব্লকের বান্দা গ্রামে একই দিনে একই মণ্ডপে তাদের বিয়ে হয়।

সন্দীপ ও কুসুম তিন বছর ধরে একসঙ্গে থাকছিলেন। তাদের একটি সন্তানও রয়েছে। সম্পর্ক এক বছর আগে নতুন মোড় নেয়, যখন সন্দীপ পশ্চিমবঙ্গের একটি ইটভাটায় কাজ করতে যান।

সেখানে সন্দীপের দেখা হয় স্বাতী কুমারীর সঙ্গে। স্বাতীও একই ইটভাটায় কাজ করতেন। সন্দীপ গ্রামের বাড়িতে ফেরার পরও দুজনের দেখা-সাক্ষাৎ অব্যাহত ছিল। শেষে পরিবারের সদস্য ও গ্রামবাসীরা তাদের সম্পর্কের কথা জানতে পেরে প্রবল বিরোধিতা শুরু করেন।

দীর্ঘ ঝগড়া ও বিবাদের পর গ্রামবাসীরা পঞ্চায়েত ডাকে। পঞ্চায়েত সিদ্ধান্ত নেয় যে সন্দীপকে দুই নারীকেই বিয়ে করতে হবে। এমন সিদ্ধান্তে দুই নারী বা তাদের পরিবার— কেউ-ই আপত্তি করেননি।

সংবাদমাধ্যমকে সন্দীপ বলেন,‘আমি জানি, এই বিয়ে নিয়ে আমাকে আইনি জটিলতায় পড়তে হবে। তবে আমি এদের দুজনকেই ভালোবাসি, এদের কাউকে ছাড়া থাকাই আমার পক্ষে সম্ভব নয়।’

মাস দুই-এক আগে বাংলাদেশেও হৈচৈ তোলে একই ধরনের ঘটনা। গত এপ্রিলে পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলার বলরামপুর ইউনিয়নে দুই প্রেমিকাকে পাশাপাশি বসিয়ে বিয়ে করেন রোহিনী চন্দ্র বর্মণ নামে এক যুবক। অবশ্য কিছুদিন যাওয়ার পর এক স্ত্রী ডিভোর্স নেন।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত