সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

সাওলের বিনা তেলে তৈরি ইফতার

আপডেট : ০৩ এপ্রিল ২০২৪, ১১:১৮ পিএম

শত শত বছরের তেলময় খাদ্যাভ্যাসের বিপরীতে বিনা তেলে তৈরি স্বাস্থ্যসম্মত, নিরাপদ ও সুস্বাদু ’সাওল ইফতার’ আয়োজন করেছে সাওল হার্ট সেন্টার বাংলাদেশ। গণমাধ্যম ব্যক্তিত্বদের সম্মানে আজ বুধবার রাজধানীর ইস্কাটন গার্ডেনের কাজল মিলনায়তনে এ ইফতার পার্টি অনুষ্ঠিত হয়।

এটি সাওলের ওয়েল ফ্রি কিচেনের তৈরি ব্যতিক্রমী, অভিনব ও জনসচেতনতামূলক ইফতার আয়োজন। সাওলের মিডিয়া শাখার আলমগীর নিশাত জানান, মানবদেহের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর ভোজ্যতেলের সবচেয়ে বেশি ব্যবহার হয় সংযম সাধনের মাস রমজানে। কাটাছেঁড়া-রক্তপাত ছাড়া বিনা রিং, বিনা অপারেশনে হৃদরোগ চিকিৎসার পথিকৃৎ সাওল হার্ট সেন্টার, বাংলাদেশ ’জনস্বাস্থ্য আন্দোলন’-এর অংশ হিসেবে রমজানে বিনা তেলে ইফতার তৈরি করে থাকে। হৃদরোগ সৃষ্টির ১৫টি কারণের মধ্যে অন্যতম হলো খাদ্যাভ্যাস ও লাইফস্টাইল। এরমধ্যে ভোজ্যতেল মহাঘাতক। খাবারে ভোজ্যতেল পরিহার করতে পারলে হৃদরোগের, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ অতিওজন, গ্যাস্ট্রিকসহ অনেক রোগের বিরাট ঝুঁকি দূর হয়ে যায়। ২০০৮ থেকে বিনা তেলে রান্না আর ২০০৯ সাল থেকে রমজানে সাওল হার্ট সেন্টার বাংলাদেশ বিনা তেলে তৈরি স্বাস্থ্যসম্মত, নিরাপদ ও সুস্বাদু’ সাওল ইফতার’ সরবরাহ করছে।

সাওল ইফতার অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক প্রথম আলোর ব্যবস্থাপনা সম্পাদক আনিসুল হক, সমকালের উপদেষ্টা সম্পাদক আবু সাঈদ খান, সাবেক সংসদ সদস্য নুরুল ইসলাম মনি, সাবেক সিনিয়র সচিব আবু আলম শহিদ খান, সাবেক স্বাস্থ্য সচিব হোসেন আবদুল মান্নান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এবিএম খুরশীদ আলম, আইইডিসিআরের পরামর্শক কাজী মিনা আহমেদ, জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডা. মুশতাক হোসেন, জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডা. আবু জামিল ফয়সাল, সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও চিকিৎসা বিজ্ঞানী ডা. লিয়াকত আলী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাস্থ্য অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. আবদুল হামিদ, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ম হামিদ, এবং সাওল হার্ট সেন্টার বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান কবি মোহন রায়হান।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত