বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

দুবাইয়ের আল হামরিয়া বন্দরে এমভি আবদুল্লাহ

আপডেট : ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:২০ এএম

জলদস্যুদের কবল থেকে মুক্ত বাংলাদেশি জাহাজ এমভি আবদুল্লাহ সংযুক্ত আরব আমিরাতের আল-হামরিয়া বন্দর জেটিতে ভেড়ানো হয়েছে। গতকাল সোমবার (২২ এপ্রিল) রাত পৌনে ১০টায় জাহাজটি বন্দরের জেটিতে ভেড়ানো হয়। ফলে সোমালিয়ার উপকূল থেকে মুক্ত হওয়ার ৯ দিনের মাথায় তীরের দেখা পেলেন জাহাজটির ২৩ নাবিক।

এসময় জাহাজটির মালিক কেএসআরএম গ্রুপের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহরিয়ার জাহান রাহাত ও কেএসআরএম গ্রুপের প্রধান নির্বাহী মেহেরুল করিম নাবিকদের সাথে আলিঙ্গন করেন। নাবিকদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানালেও অনেকেই আনন্দে চোখের জল ছেড়ে দেন।

জাহাজ থেকে পাঠানো এক ভিডিওতে দেখা যায়, সকল নাবিকরা জাহাজের মালিক কর্তৃপক্ষের প্রতিনিধির সাথে গ্রুপ ছবি তুলছেন। একে অপরের সাথে আলিঙ্গন করছেন। এর আগে জাহাজটি গতকাল সোমবার বিকেলে বন্দরের বহির্নোঙরে পৌঁছেছিল। এখন জাহাজটিতে থাকা ৫৫ হাজার টন কয়লা খালাসের পর জাহাজটি চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসবে।

জানা যায়, আগামী ১০ থেকে ১২ তারিখের মধ্যে জাহাজটি চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছাতে পারে। তবে জাহাজে থাকা ২৩ নাবিকের মধ্যে সেকেন্ড অফিসার মোজাহেরুল ইসলাম চৌধুরী ও স্টুয়ার্ড মোহাম্মদ নুর উদ্দিন দুবাই ছাড়া সবাই জাহাজে করে চট্টগ্রামে আসবে। এই দুজন বিমানে চট্টগ্রামে আসার কথা রয়েছে।

গত ১৩ এপ্রিল ভোর ৩টায় সোমালিয়ান দস্যুদের কাছ থেকে মুক্তি পায় এমভি আবদুল্লাহ ও ২৩ নাবিক। দস্যুদের ৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মুক্তিপণ হিসেবে দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। গত ১২ মার্চ মোজাম্বিকের মাপুতো বন্দর থেকে আরব আমিরাতের আল-হামরিয়া বন্দরে যাওয়ার পথে জাহাজটি দস্যুদের কবলে পড়েছিল।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত