বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

দিনমজুরের বসত বাড়ি ভেঙে জমি দখলের চেষ্টা

আপডেট : ২৭ এপ্রিল ২০২৪, ১০:০০ পিএম

নাটোরের বড়াইগ্রামে দিনমজুর ভাতিজার ঘর ভেঙে ও গাছ কেটে আপন চাচা বসতভিটা দখলের চেষ্টা করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। বর্তমানে জমির এক পাশে জোর করে মাটি ফেলে ভরাট করছেন তিনি। বাধা দিতে গেলে তাকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় যেকোনো সময় প্রাণহানীসহ রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

জানা যায়, প্রায় ২৫ বছর আগে উপজেলার লক্ষ্মীপুর গ্রামের লোকমান মন্ডলের ছেলে আজাদ আলীকে তার দাদা খোকা মন্ডল পৌনে ১২ শতাংশ জমি রেজিস্ট্রি করে দেন। পরে আজাদ রাস্তা সংলগ্ন ওই জমির গর্ত ভরাট করে বাড়ি করে বসবাস করে আসছেন। কিন্তু কিছুদিন যাবৎ তার চাচা কাজিম উদ্দিন বসতঘরের একাংশসহ আজাদের ভোগদখলে থাকা ভিটা জমির অর্ধেকটা নিজের বলে দাবি করেন। কাজিম উদ্দিন কয়েকদিন যাবৎ জোর করে আম ও মেহগনিসহ কমপক্ষে ১০টি গাছ কেটে নিয়েছেন। এমনকি শনিবার থেকে ওই ভিটাতে শ্রমিক দিয়ে মাটি ফেলছেন তিনি। এ সময় আজাদ তাতে বাধা দিলে তার চাচা ও চাচাতো ভাইয়েরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাকে প্রাণণাশের হুমকি দেন। এ ঘটনায় উভয় পক্ষে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এ ব্যাপারে আজাদ আলী বলেন, চাচা আমার বসতঘরের একাংশসহ রান্নাঘর, টিউবওয়েল ও বাথরুম ভেঙে দিয়ে জোর করে জমি দখল করে নেওয়ার চেষ্টা করছেন। আমার লাগানো গাছগুলো কেটে নিয়েছেন। ঘর ভেঙে ভিটা দখল করে নিলে স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে আমি কোথায় যাব।

অভিযুক্ত কাজিম উদ্দিন বলেন, ভাতিজার বাড়িটা সরকারি রাস্তার সাথে হলেও আমার বাড়ি একটু ভেতরে। যদিও চলাচলের মত রাস্তা আছে, তবু আমি সরকারি রাস্তার দিকে লম্বালম্বি ভাবে ভাগ করে দখল নিতে চাই। এজন্য ভাতিজার বাড়ি ভাঙতে হলেও কিছু করার নেই। তবে ২৫ বছর পরে কেন এমন দাবি করছেন জানতে চাইলে তিনি কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি।

এ ব্যাপারে বড়াইগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের ওয়ার্ড সদস্য নুর ইসলাম সিদ্দিকী বলেন, বারবার উদ্যোগ নিয়েও কাজিম উদ্দিনের অসহযোগিতার কারণে বিষয়টি সমাধান করা সম্ভব হয়নি। কাজিম উদ্দিন অন্যায়ভাবে আজাদকে উচ্ছেদের চেষ্টা করছেন।

বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিউল আজম খান বলেন, এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত