সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

এমপি আনারের সর্বনাশের কারণ কি চোরাচালান?

আপডেট : ২২ মে ২০২৪, ০১:২১ পিএম

ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনারের মরদেহ উদ্ধার করেছে ভারতের পুলিশ। বুধবার (২২ মে) সকালে কলকাতার নিউটাউন এলাকার এক অভিজাত আবাসন সঞ্জিভা গার্ডেন থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয় বলে জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো। 

চিকিৎসার কথা বলে চলতি মাসের ১১ মে ভারতে যান ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার। ভারতের পশ্চিমবঙ্গে পরিচিত এক ব্যক্তির বাসায় গিয়ে ওঠেন তিনি। ১৬ মে থেকে পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় তাঁর।

এমপি আনারের নিখোঁজের বিষয়ে আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের একাধিক নেতা দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘আনারের মিসিং কেস (নিখোঁজের ঘটনা) নিয়ে তারা সবাই খটকার মধ্যে রয়েছেন।’

আওয়ামী লীগের এ নেতারা বলেন, আনার কেন নিখোঁজ হবেন এ প্রশ্নটাই ঘুরেফিরে বোঝার চেষ্টা চলছে। সাধারণত দুটি কারণে নিখোঁজ হতে পারে কেউ। হতে পারে স্বেচ্ছায় অথবা রাজনৈতিক, সামাজিক ও আন্তর্জাতিক বড় কোনো পর্যায়ে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠলে। আনার এসবের কিছুতেই পড়েন না। তার নিখোঁজ হওয়ার কোনো কারণ দলের নজরে পড়ছে না।

এদিকে নিখোঁজ হওয়ার পর বাংলাদেশের বিভিন্ন সরকারি সংস্থা ও গণমাধ্যমে কালোবাজারিসহ অনৈতিক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে আনারের সম্পৃক্ততার খবর আসছে।

স্থানীয় একাধিক সূত্র দেশ রূপান্তরকে বলেন, চোরাকারবারে এমপি আনারের সম্পৃক্ততা রয়েছে। এমপি হওয়ার আগে থেকেই বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত দিয়ে চোরাকারবারে তার জড়িত থাকার কথা স্থানীয় সবারই জানা। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় একাধিক নেতার সঙ্গে কথা বলেও এর কিছু সত্যতা পাওয়া গেছে।

আওয়ামী লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর তিন সদস্য দেশ রূপান্তরকে বলেন, কালোবাজারির সঙ্গে এমপি আনারের সম্পৃক্ততা আগে থেকেই ছিল। তারা আরও বলেন, সীমান্ত অঞ্চলের প্রভাবশালী মহলের সবাই এমন কারবারে জড়িত থাকে বা তাদের জ্ঞাতসারেই এটা হয়। ফলে এটি অস্বাভাবিক কোনো ঘটনাও মনে করছেন না তারা।

সম্পাদকমণ্ডলীর এক সদস্য অনেকটা পরিষ্কার করেই বলেন, ‘আনারের মিসিং কেস স্মাগলিং সংশ্লিষ্ট। সীমান্তের ওপারের এ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত কোনো চক্রের স্বার্থে আঘাত হানায় তারা সুযোগ কাজে লাগিয়ে থাকতে পারে।’

একটি সূত্রে জানা গেছে, লেনদেনের বিরোধও থাকতে পারে। হয়তো তাকে প্রলুব্ধ করে ভারতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাই কোনো অঘটনের আশঙ্কা উড়িয়ে দেওয়া যায় না।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত