সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান, জোট সরকার ভাঙার হুমকি ইসরায়েলি মন্ত্রীর

  • যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছেন ইসরায়েলের অর্থমন্ত্রী এবং জাতীয় নিরাপত্তা মন্ত্রী
  • নেতানিয়াহু রাজি হলে পদত্যাগ ও জোট সরকার ভেঙে দেওয়ার হুমকি দিয়েছেন তারা
আপডেট : ০২ জুন ২০২৪, ১২:৩১ পিএম

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ঘোষিত গাজায় যুদ্ধবিরতি পরিকল্পনায় ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু রাজি হলে তাঁর মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ ও ক্ষমতাসীন জোট সরকার ভেঙে দেওয়ার হুমকি দিয়েছেন দেশটির কট্টর ডানপন্থী দুজন মন্ত্রী।

মন্ত্রীদুজন হলেন, ইসরায়েলের অর্থমন্ত্রী বেজালেল স্মোট্রিচ এবং জাতীয় নিরাপত্তা মন্ত্রী ইতামার বেন-গভির। এ বিষিয়ে মন্ত্রীরা বলেন, হামাসকে নির্মূল করার আগে তাদের সঙ্গে কোনো ধরনের চুক্তি সইয়ের বিরোধী তাঁরা।

রোববার ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানায়।

তবে বাইডেন ঘোষিত গাজা যুদ্ধবিরতি পরিকল্পনায় নেতানিয়াহু সমর্থন জানালে ইসরায়েলের সরকারকে সমর্থন জানানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বিরোধী নেতা ইয়ার ল্যাপিড।

যদিও নেতানিয়াহু নিজেই হামাসের সামরিক ও গাজা শাসনের সক্ষমতার অবসান না ঘটানো এবং সব জিম্মি মুক্ত না করা পর্যন্ত কোনো স্থায়ী যুদ্ধবিরতিতে না যাওয়ার বিষয়ে জোর দিয়েছেন।

গত শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন গাজায় শান্তি প্রতিষ্ঠায় তিন পর্যায়ের যুদ্ধবিরতির পরিকল্পনা ঘোষণা করেন এবং ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাসের প্রতি তা মেনে নেওয়ার আহ্বান জানান। পরবর্তীতে হামাস এক বিবৃতিতে এ পরিকল্পনাকে ‘ইতিবাচকভাবে’ বিবেচনা করার কথা জানায়।

বাইডেনের গাজায় যুদ্ধবিরতির পরিকল্পনার মধ্যে তিনটি স্তর রয়েছে যেখানে ছয় সপ্তাহের যুদ্ধবিরতি প্রতিষ্ঠা কার্যকর, ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনীর (আইডিএফ) সব সদস্যকে গাজার জনবহুল এলাকাগুলো থেকে প্রত্যাহার এবং পরিকল্পনার চূড়ান্ত পর্যায়ে, হামাসের হাতে জিম্মি থাকা সবার মুক্তি, বৈরিতার স্থায়ী অবসান ও গাজায় বড় ধরনের পুনর্গঠন কাজ পরিচালনা করার কথা রয়েছে।

তবে গতকাল শনিবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক পোস্টে অর্থমন্ত্রী স্মটরিচ বলেন, ‘প্রস্তাবিত রূপরেখা মেনে নিলে এবং হামাসকে নির্মূল না করে ও সব জিম্মিকে ফিরিয়ে না এনে যুদ্ধের পরিসমাপ্তি টানা হলে নেতানিয়াহু এ সরকারের অংশ থাকবেন না।’

অর্থমন্ত্রীর কথায় তাল মিলিয়ে ইতামার বেন-গভির বলেন,

বেন-গভির বলেন, "এই চুক্তির অর্থ হল হামাসকে ধ্বংস না করেই যুদ্ধের সমাপ্তি। এটি একটি বেপরোয়া চুক্তি, যা সন্ত্রাসবাদের বিজয় এবং ইসরায়েলের নিরাপত্তার জন্য হুমকিস্বরূপ।

ইসরায়েলের পার্লামেন্টে নেতানিয়াহুর জোট সরকারের সামান্য সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে। ক্ষমতায় থাকতে তাঁর সরকারকে বেন-গভিরের ওটজমা ইয়েহুদিত (জিউইশ পাওয়ার) পার্টি ও স্মোট্রিচের রিলিজিয়াস জায়োনিজম পার্টির মতো কয়েকটি দলের সঙ্গে জোট করতে হয়েছে। পার্লামেন্টে বেন-গভিরের দলের আসন ছয়টি ও স্মোট্রিচের দলের সাতটি।

অন্যদিকে পার্লামেন্টে ইসরায়েলের অন্যতম প্রভাবশালী বিরোধীদলীয় রাজনীতিবিদ ইয়ার লাপিডের দল ইয়েশ আটিডের (দেয়ার ইজ আ ফিউচার) আসনসংখ্যা ২৪।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত