সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

এভারেস্টসহ তিন পর্বত থেকে ৫ মরদেহ ও ১১ টন বর্জ্য উদ্ধার

  • ১১ টন আবর্জনা, চারটি মরদেহ ও একটি কঙ্কাল অপসারণে ৫৫ দিন লেগেছে
  • বসন্তকালীন মৌসুমে ৪২১ জন পর্বতারোহণের অনুমতি পেয়েছে
  • ৫০ টনের বেশি আবর্জনা ও দুই শতাধিক মরদেহ এভারেস্টে ঢেকে রেখেছে
আপডেট : ০৭ জুন ২০২৪, ০৫:০৮ পিএম

চলতি বছরের এ পর্যন্ত মাউন্ট এভারেস্টসহ হিমালয়ের তিনটি পর্বত থেকে ১১ টন আবর্জনা, চারটি মরদেহ এবং একটি কঙ্কাল অপসারণ করা হয়েছে। নেপালের সেনাবাহিনী জানিয়েছে, এভারেস্ট, নুপৎসে ও লোৎসে পর্বত থেকে আবর্জনা ও মরদেহ উদ্ধার করতে তাদের ৫৫ দিন সময় লেগেছে।

ধারণা করা হয়, ৫০ টনের বেশি আবর্জনা এবং দুই শতাধিক মরদেহ এভারেস্ট ঢেকে রেখেছে। সৌদি গেজেটের প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৯ সালে বিভিন্ন কারণে পর্বতটিতে বার্ষিক পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান শুরু করে সেনাবাহিনী, যাকে প্রায়শই বিশ্বের সর্বোচ্চ ‘আবর্জনার ভাগাড়’ বর্ণনা করা হয়।

সেনাবাহিনী জানিয়েছে, পাঁচটি অভিযানে তারা ১১৯ টন আবর্জনা, ১৪টি মরদেহ এবং কিছু কঙ্কাল উদ্ধার করেছে। চলতি বছর কর্তৃপক্ষের লক্ষ্য ছিল আবর্জনা হ্রাস করা। এছাড়া পর্বতারোহীদের ট্র্যাকিং ডিভাইস দিয়ে তাদের মল ফিরিয়ে আনার মাধ্যম উন্নত করার পরিকল্পনা তাদের।

লোৎসে পর্বত

দেশটির পর্যটন অধিদপ্তরের পর্বতারোহণ বিভাগের পরিচালক রাকেশ গুরুং বিবিসিকে বলেছেন, নেপাল সরকার আবর্জনা সংগ্রহের জন্য একটি মাউন্টেন রেঞ্জার্স দল গঠনের পরিকল্পনা করছে।

গত মে মাসে শেষ হওয়া বসন্তকালীন মৌসুমে ৪২১ জন পর্বতারোহীকে অনুমতি দিয়েছে সরকার। এই সংখ্যা গত বছরের রেকর্ড ৪৭৮ জন থেকে কম। তবে এতে নেপালি গাইডদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। এ বছর এখন পর্যন্ত সব মিলিয়ে ৬০০ জন পর্বতারোহণ করেছেন। এছাড়া গত বছর ১৯ জনের তুলনায় এ বছর আটজন পর্বতারোহী নিখোঁজ বা মারা গেছে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত