রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

আজিজ ভিকটিম হতে পারে, জাজ মাল্টিমিডিয়া নয়: আলিমুল্লাহ খোকন

আপডেট : ০২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০:২২ পিএম

ঢাকাই ছবির শীর্ষ প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া। ২০১২ সাল থেকে প্রতিষ্ঠানটি সিনেমা নির্মাণ করে আসছে। পাশাপাশি ডিজিটাল প্রযুক্তিতে ছবি প্রদর্শনের কাজটিও করছে। শতাধিক সিনেমা হলকে ডিজিটালাইজেশনের মাধ্যমে বদলে দিয়েছে পুরো সিনেমার চেহারা। জাজ মাল্টিমিডিয়ার সিইও আলিমুল্লাহ খোকন ২ ফেব্রুয়ারি এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে জানিয়েছেন চলচ্চিত্রের স্বার্থে তারা শিগগিরই নতুন ঘোষণা দেবেন। এক লাইনের ওই স্ট্যাটাসের সূত্র ধরে প্রথমে যোগাযোগ করা হয় জাজ কর্ণধার আব্দুল আজিজের সঙ্গে, কিন্তু তিনি মিটিংয়ে ব্যস্ত থাকায় কথা বলতে পারেননি। পরে যোগাযোগ করা হয় সিইও আলিমুল্লাহ খোকনের সঙ্গে।

দেশ রূপান্তরকে খোকন বলেন, ‘আমাদের নতুন ঘোষণা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে হলে ১লা মার্চ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।’

মূলত কোন বিষয়গুলোকে সামনে রেখে জাজ নতুন ঘোষণা দিতে যাচ্ছে? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘চলচ্চিত্রের স্বার্থে নানা বিষয়ে সেই ঘোষণায় প্রাধান্য পাবে। ডিজিটাল মেশিনের ভাড়া, নতুন সিনেমা, প্রজেকশনসহ চলচ্চিত্রের স্বার্থে নানা বিষয় নিয়েই আমরা কাজ করছি। আমরা এমন ঘোষণা দিতে চাই যাতে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট সবাই সুবিধা ভোগ করতে পারে।’

তিনি আরও বলেন, ‘সিনেমা শিল্পে এখন ক্রান্তিকাল চলছে। বিশেষ করে যৌথ প্রযোজনার ছবির নতুন নীতিমালা হওয়ার পর যৌথ প্রযোজনার ছবিও নির্মাণও বন্ধ হয়ে গেছে। সিনেমাকে বাঁচানোর জন্য আমরা চেষ্টা করছি। সেই কারণেই নতুন ঘোষণা নিয়ে হাজির হবে জাজ।’

এদিকে ক্রিসেন্ট গ্রুপের অর্থ কেলেঙ্কারি মামলায় জড়িয়েছে জাজ কর্ণধার আব্দুল আজিজের নামও। সেই প্রভাব জাজ মাল্টিমিডিয়ার ওপর পড়বে কিনা জানতে চাইলে খোকন বলেন, ‘ক্রিসেন্ট গ্রুপ তো আলাদা কোম্পানি। জাজ আলাদা কোম্পানি। আব্দুল আজিজের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠলেও এখনো তা প্রমাণিত হয়নি। আর আজিজ ভিকটিম হতে পারে, জাজ মাল্টিমিডিয়া নয়, ফলে জাজে এর প্রভাব পড়ার কোনো সম্ভাবনা নেই।’

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে জাজকে নিয়ে নানা সমালোচনার প্রসঙ্গ টানলে খোকন বলেন, ‘জাজ চলছে তার নিজস্ব নিয়মে। জাজ বন্ধ হওয়ার কোনো প্রশ্নই ওঠে না।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত