সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

‘অনুমতি ছাড়া জন্ম, ভরণ-পোষণ না দেওয়া’

বাবা-মায়ের বিরুদ্ধে মামলার পরিকল্পনা সন্তানের

আপডেট : ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১১:২৫ পিএম

‘অনুমতি না নিয়ে জন্ম দেওয়া’ এমন অভিযোগে মা-বাবার বিরুদ্ধে মামলার পরিকল্পনা করেছেন ২৭ বছর বয়সী এক ভারতীয়। রাফায়েল স্যামুয়েল নামের এই যুবক দেশটির মুম্বাইয়ের ব্যবসায়ী।

মামলার বিষয়ে তিনি বিবিসিকে বলেন, পৃথিবীতে সন্তান আনা ভুল কাজ। কারণ সে সন্তানকে জীবনভর নানা কষ্টে ভুগতে হয়। রাফায়েল এটুকু বোঝেন যে, জন্মের আগে কারও অনুমতি নেওয়া যায় না। তবে তার মতে, জন্ম নেওয়ার সিদ্ধান্ত শিশুরা নিতে পারে না। যেহেতু তাদের জিজ্ঞাসা করে জন্ম দেওয়া হয় না, সেহেতু জীবনের বাকি সময়টাতে ভরণপোষণ দিতে হবে তাদের। রাফায়েল যে ধরনের দাবি করছেন, তাতে যেকোনো পরিবারে সমস্যা দেখা দিতে পারে। তবে মুম্বাইয়ের এ যুবকের দাবি, মা-বাবার (দুজনই আইনজীবী) সঙ্গে সুসম্পর্ক আছে তার। সন্তানের দাবিকে তারা মজার ছলে নিচ্ছেন। ব্যবসায়ীর মা কবিতা করনাদ স্যামুয়েল এক বিবৃতি দিয়ে নিজেদের অবস্থান জানিয়েছেন। বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘আমরা দুজনই আইনজীবী জানার পরও মা-বাবাকে আদালতে নেওয়ার দুঃসাহস দেখানোয় ছেলে অবশ্যই প্রশংসার দাবিদার। আমরা কীভাবে তার অনুমতি নিতাম, রাফায়েল যদি সে বিষয়ের যৌক্তিক কোনো ব্যাখ্যা দিতে পারে, তাহলে আমি নিজের ভুল স্বীকার করে নেব।’ রাফায়েল সন্তান জন্মের বিরোধী। অ্যান্টি-ন্যাটালিজম নামের এই মতবাদে বিশ্বাসীরা মনে করেন, জীবন দুর্দশায় ভরা। মানুষের উচিত দ্রুতই সন্তান জন্ম বন্ধ করা। আইনজীবী মা-বাবার সন্তান মনে করেন, শিশুর জন্ম না হলে পৃথিবী থেকে ধীরে ধীরে মানুষ বিলুপ্ত হয়ে যাবে। এটা পৃথিবীর জন্য মঙ্গলজনক। তিনি বলেন, ‘মানব প্রজাতির কোনো মানে নেই। অনেক লোক দুর্দশায় নিপতিত। মানুষ বিলুপ্ত হলে পৃথিবী ও অন্য প্রাণীরা আরও সুখী হবে। তারা নিশ্চিতভাবে ভালো থাকবে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত