শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

অনিয়মের দায়ে অনেক ঠিকাদারের কাজ বাতিল

আপডেট : ০৩ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৫২ এএম

বাংলাদেশ পাবলিক প্রকিউরমেন্ট অথরিটি (বিপিপিএ) কর্তৃক ই-জিপিতে সংযোজিত দরদাতা ডেটাবেজ সরকারি ক্রয়ে স্বচ্ছতা বাড়াতে সহায়ক হবে। ইতিমধ্যে অনিয়মের অভিযোগে অনেক দরদাতাকে রহিত করা হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার বিপিপিএর প্রতিষ্ঠা ও টেকসই সরকারি ক্রয় বিষয়ে সাংবাদিকদের জন্য এক কর্মশালায় বিপিপিএর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মো. শোহেলের রহমান চৌধুরী এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের সচিব আবুল কাশেম মো. মহিউদ্দিন।

সাংবাদিকরা প্রশ্ন করেন, দরপত্র যারা পাচ্ছে তা কতটা স্বচ্ছ আর ই-জিপি কীভাবে তা নিশ্চিত করবে? একটি প্রতিষ্ঠান ১৯টি কাজ পেয়েছে আবার ৫টা প্রতিষ্ঠান সড়ক ও জনপথের বেশিরভাগ কাজ কীভাবে পাচ্ছে?

বিপিপিএর সিইও জানান, সরকারি ক্রয়বিধি অনুযায়ী ক্রয়কারী সেটি নিশ্চিত করবে। অনিয়মের অভিযোগে বর্তমানে অনেক দরদাতাকে রহিত করা হয়েছে। আরও অনিয়ম খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আইএমইডি সচিব এ বিষয়ে বলেন, বিপিপিএ এ-সংক্রান্ত এক সার্কুলার জারির পর থেকে ক্রয়কারীরা এখন বেশি সোচ্চার হয়েছে। ক্রমে এ অবস্থার উন্নতি হবে বলে তিনি আশা করেন। কোনো কোনো ক্ষেত্রে দোষ প্রমাণ হওয়ায় ক্রয়কারী কর্মকর্তাকেও চাকরিচ্যুত করা হয়েছে।

বিপিপিএর সিইও বলেন, দরপত্র ডেটাবেজে প্রত্যেক ঠিকাদারের কাজের এবং প্রাপ্ত বিল-সংক্রান্ত তথ্য সংরক্ষিত থাকে, তাই ক্রয়কারী দরদাতা সম্পর্কে সবকিছু জানতে পারে। ফলে কোনো ঠিকাদারের পক্ষে কোনো তথ্য লুকানো সম্ভব নয়। এতে সরকারি ক্রয়ে অধিকতর স্বচ্ছতা নিশ্চিত হবে।

বিপিপিএর পরিচালক (যুগ্ম সচিব) মো. মাহফুজার রহমান অনুষ্ঠানে বিপিপিএর প্রতিষ্ঠা এবং টেকসই সরকারি ক্রয় বিষয়ে একটি বিস্তারিত উপস্থাপনা পেশ করেন।

আবুল কাশেম মো. মহিউদ্দিন বলেন, সেন্ট্রাল প্রকিউরমেন্ট টেকনিক্যাল ইউনিট (সিপিটিইউ) ছিল আইএমইডির একটি ছোট ইউনিট।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত