রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ঈদের ছুটিতে হামলা সংঘর্ষ গুলি নিহত ৩, আহত দেড় শতাধিক

আপডেট : ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৪১ এএম

পবিত্র ঈদুল ফিতরের ছুটিতে দেশের বেশ কয়েক স্থানে হামলা ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। কয়েক জায়গায় ব্যবহার করা হয়েছে আগ্নেয়াস্ত্র। এতে নারীসহ তিনজন নিহত, গুলিবিদ্ধসহ আহত হয়েছে দেড় শতাধিক মানুষ। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

মুন্সীগঞ্জ : আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার ছোট মোল্লাকান্দি গ্রামে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিতে পারভেজ খান (২০) নামে এক যুবক নিহত হন। এ সময় আরও একজন গুলিবিদ্ধসহ আহত হন অন্তত ছয়জন। ঈদের দুদিন পর শনিবার ভোরে ওই গ্রামের আহম্মদ আলী ও মামুন হালদারের লোকজনের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের পর গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পারভেজ খান ও মো. রাব্বিকে (১৯) মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান পারভেজ। এ ছাড়া অন্য আহতদের মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়। এদিকে, সংঘর্ষ চলাকালে দুপক্ষই একে অন্যের অন্তত ১৫টি ঘরবাড়ি ভাঙচুর করেছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : গত রবিবার দুপুরে সরাইল উপজেলার পানিশ্বর ইউনিয়নের টিঘর গ্রামে মোল্লাবাড়ি ও বাবুর বাড়ির লোকজন অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।  এতে অন্তত ১৫ জন আহত হন।

নাসিরনগর উপজেলার চাতলপাড় ইউনিয়নের ঘুজিয়াখাইল গ্রামে জমিতে সেচ দেওয়া নিয়ে গত শনিবার দুপক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে কমপক্ষে ১৫ জন আহত হন।

সরাইল উপজেলার শাহাজাদাপুর ইউনিয়নের শাহাজাদাপুর গ্রামে সরকারি জায়গায় চাষ করা ধান নিয়ে গত শনিবার সকাল থেকে দফায় দফায় সংঘর্ষে কামাল উদ্দিন নামে একজন নিহত হন। এ ঘটনায় আহত হয়েছে অন্তত ৩৫ জন।

নাসিরনগর উপজেলার ফান্দাউক গ্রামের দুপক্ষের মধ্যে বৃহস্পতিবার প্রীতি ক্রিকেট খেলায় বাগ্বিত-ার একপর্যায়ে তারা সংঘর্ষে জড়ায়। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া হয়। পরদিন শুক্রবার তারা আবার সংঘর্ষে জড়ালে নারীসহ দুপক্ষের ৩০ জন আহত হয়।

সরাইলে গত বৃহস্পতিবার হত্যা মামলার আসামির বাড়ি ঘেরাও করলে দুপক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে আহত হয় ১৫ জন।

কুষ্টিয়া : মিরপুর উপজেলার ফুলবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা আতাহার আলীর পিস্তলের ছোড়া গুলিতে রেজাউল হক (৫০) নামে পথচারী এক ভ্যানচালক এবং হাসেম গাজী (৫৫) নামে এক আওয়ামী লীগ কর্মীসহ দুজন গুলিবিদ্ধ হয়ে আশঙ্কাজনক অবস্থায় কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। গত শনিবার সন্ধ্যায় ইউনিয়নের শিমুলিয়া বাজারে গুলিবর্ষণ করেন আতাহার আলী।

লক্ষ্মীপুর : সদর উপজেলার পাঁচপাড়া গ্রামে দুর্বৃত্তদেও হামলায় ছাত্রলীগের চার নেতাকর্মী গুলিবিদ্ধসহ ছয়জন আহত হন। এলাকায় রাজনৈতিক আধিপত্য বিস্তার নিয়ে গত শুক্রবার গভীর রাতে এই হামলা হয় বলে আহতরা দাবি করেন। অন্যদিকে, লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জের মেঘনা বাজার এলাকায় গভীর রাতে প্রতিপক্ষের এলোপাতাড়ি দায়ের কোপে জ্যোৎস্না আক্তার (৩০) নামে এক নারী নিহত হন। এ সময় কুপিয়ে আহত করা হয় তার স্বামী আলা উদ্দিনকে (৩৬)।

জামালপুর : সদর উপজেলার তুলসীরচরের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সাইদুর রহমান পক্ষের লোকজনের ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ছয়জন গুরুতর আহত হয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার ঈদের দিন বিকেলে এ হামলা হয়।

গোপালগঞ্জ : কাশিয়ানীর দক্ষিণ ফুকরা গ্রামে মোল্লা ও শেখ বংশের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ৪০ জন আহত হয়েছে। গত রবিবার সকাল সাড়ে ৭টা থেকে শুরু হয়ে দুই ঘণ্টাব্যাপী চলে এই সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া।

রাজবাড়ী : পাংশা উপজেলার কসবামাজাইল ইউনিয়নের মিশ্রীপাঁচবাড়িয়া গ্রামে এক বাড়িতে দুই দফা হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। হামলায় চারজন গুলিবিদ্ধ হন। গত বুধবার গভীর রাতে ঘটে এ ঘটনা।

শ্রীপুর (গাজীপুর) : শ্রীপুরে মোহাম্মদ আলী মিয়া (৩৫) এক পোলট্রি ব্যবসায়ীকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েছে দুর্র্বৃত্তরা। গত বুধবার চাঁদরাতে কেওয়াবাজার থেকে টাকাসহ বাড়ি ফেরার সময় নতুনবাজার খাদিজাতুল কোবরা মহিলা মাদ্রাসা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গুলির প্রতিবাদে গতকাল সোমবার দুপুরে কেওয়াবাজারে মানববন্ধন করেছেন ব্যবসায়ীরা।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত