শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

বয়স্কদের কোরআন ও দ্বীন শিক্ষা

আপডেট : ১৪ মে ২০২৪, ১২:৪১ এএম

মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ হলেও বয়স্ক শিক্ষার দিকটি বরাবরই আমাদের দেশে উপেক্ষিত। বিশেষ করে বয়স্কদের কোরআন ও দ্বীন শিক্ষার বিষয়টি। বয়স্ক শিক্ষার প্রতি এমন উদাসীনতা দেশের হাজারও সমস্যার অন্যতম। সমাজের বরেণ্য ইসলামি চিন্তাবিদরা বয়স্কদের দ্বীন শিক্ষার প্রয়োজনীয়তার বিষয়টি গভীরভাবে উপলব্ধি করে বয়স্ক শিক্ষার ব্যবস্থাপনা ও পরিচালনায় নিজেকে নিয়োজিত করছেন। ছোটদের জন্য মহল্লার মসজিদে বা সকালের মক্তবে কোরআন ও দ্বীন শিক্ষার ব্যবস্থা সামান্য থাকলেও বড় কিংবা বয়স্কদের জন্য সে ব্যবস্থা মোটামুটি কমই বলা যায়। ফলে প্রবল আগ্রহ ও ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও অনেকেই শুধু ব্যবস্থাপনার অভাবে কোরআন ও দ্বীন শিক্ষা গ্রহণ করতে পারছেন না।

কর্মজীবনের ব্যস্ততায় একটু লম্বা সময় নিয়ে তাবলিগে গিয়ে অথবা মাদ্রাসায় ভর্তি হয়ে তাদের জন্য কোরআন ও দ্বীন শিক্ষাও সম্ভব নয়। এমতাবস্থায় কর্মজীবী ও বয়স্কদের জন্য কোরআনে কারিম ও প্রয়োজনীয় দ্বীন শিক্ষার জন্য দরকার সমন্বিত উদ্যোগ। এ ক্ষেত্রে মাদ্রাসার শিক্ষক, মসজিদের ইমাম-খতিব ও সমাজের নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিরা যথাযথ ভূমিকা রাখতে পারেন। এই ব্যবস্থার ফলে সমাজে কোরআন ও দ্বীন শিক্ষার ব্যাপক প্রচার-প্রসার ঘটবে এবং সমাজে কাক্সিক্ষত পরিবর্তন আসবে।

বয়স্ক শিক্ষার ক্ষেত্রে কোনো ধরনের আলস্য বা ভিন্নমত পোষণের কোনো সুযোগ নেই। বস্তুত কোরআন শিক্ষা করা এবং শিক্ষা দানের বিষয়টি অত্যন্ত ফজিলতপূর্ণ কাজ। এ প্রসঙ্গে হাদিসে ইরশাদ হয়েছে, হজরত আনাস বিন মালেক (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, হজরত রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘তোমরা বলতে পারো কি দানের দিক দিয়ে সর্বাপেক্ষা বড় দাতা কে? সাহাবারা উত্তরে বললেন, আল্লাহ ও তার রাসুলই অধিক অবগত। হজরত রাসুলুল্লাহ (সা.) বললেন, দানের দিক দিয়ে আল্লাহ হচ্ছেন সর্বাপেক্ষা বড়। অতঃপর বনি আদমের মধ্যে আমিই সর্বাপেক্ষা বড় দাতা। আর আমার পর বড় দাতা হচ্ছে সেই ব্যক্তি, যে ইলম শিক্ষা করবে এবং তার প্রচার-প্রসার করতে থাকবে। কিয়ামতের দিন সে একাই (দলবলসহ) একজন আমির অথবা (রাবির সন্দেহ) একটি উম্মত হয়ে উঠবে।’ (মিশকাত শরিফ)

অন্য আরেক হাদিসে ইরশাদ হয়েছে, হজরত ওসমান (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, হজরত রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘তোমাদের মধ্যে সর্বাপেক্ষা উত্তম ওই ব্যক্তি, যে নিজে শেখে এবং অন্যকে তা শিক্ষা দেয়।’ (সহিহ বুখারি)

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত