শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ট্রেনের ইঞ্জিনের সামনে বসে ভ্রমণ, নামার সময় কাটা পড়ে মৃত্যু

আপডেট : ১৪ মে ২০২৪, ০১:০৯ পিএম

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা পাগলা রেলস্টেশনে ট্রেনে কাটা পড়ে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। তার নাম পরিচয় জানা যায়নি। আনুমানিক ৫০ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি ট্রেনটির ইঞ্জিনের সামনের অংশে বসে যাচ্ছিলেন বলে জানা গেছে।

আজ মঙ্গলবার (১৪ মে) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে। মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসক বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।

তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসা ইমরাজ আহসান নামে স্থানীয় এক যুবক জানান, ঢাকা থেকে একটি ট্রেন নারায়ণগঞ্জ যাচ্ছিল। সেই ট্রেনটির ইঞ্জিনের সামনের অংশে বসে ছিলেন ওই ব্যক্তি। ফতুল্লা পাগলা রেলস্টেশনে পৌঁছালে ট্রেন থেকে নামার চেষ্টা করেন তিনি। এতেই পড়ে গিয়ে ট্রেনের নিচে চলে যান। সঙ্গে সঙ্গে তার দুই পায়ের উপর দিয়ে উঠে যায় ট্রেনের চাকা।

ইমরাজ আরও জানান, ট্রেনের নিচে পড়ে তার দুই পা ক্ষবিক্ষত হয়ে যায়। তবে আশপাশের কেউই তাকে ধরে হাসপাতালে নিচ্ছিল না। উপায়ন্ত না পেয়ে তিনি একাই ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে আসেন। তবে চিকিৎসক পরীক্ষা-নিরিক্ষা করে তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে ঢাকা মেডিকেল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ মো. বাচ্চু মিয়া জানান, স্থানীয় এক যুবক ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিয়ে এসেছেন। তার মাধ্যমে জানা গেছে, ট্রেনে কাটা পড়ে তার মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশকে জানানো হয়েছে। তবে ধারণা করা হচ্ছে, ওই ব্যক্তি ভবঘুরে প্রকৃতির। তার মরদেহটি মর্গে রাখা হয়েছে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত