সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

এমপির গালে পাল্টা চড় মেরে নিরাপত্তা চাইলেন ভোটার

আপডেট : ১৪ মে ২০২৪, ০৭:২০ পিএম

ভিআইপি হিসেবে সরাসরি ভোটকেন্দ্রে ঢুকে পড়েছিলেন ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের ওয়াইএসআর কংগ্রেস পার্টির বিধানসভার সদস্য শিবকুমার। কিন্তু ভোটকেন্দ্রে ঢোকার সময় বাধা দেওয়ায় এক ভোটারকে কষে চড় মারেন তিনি। পরে ওই ভোটারও পাল্টা চড় মারেন তার গালে। সম্প্রতি এ ঘটনার একটি একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, সোমবার ভারতের চতুর্থ দফার লোকসভা নির্বাচনে অন্ধ্রপ্রদেশের একটি ভোটকেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। ওই ভোটারের নাম গোট্টুমালা সুধাকর। তিনি তেনালি ভোটকেন্দ্রে ভোট দিতে গিয়েছিলেন। ওই কেন্দ্রেই সপরিবার ভোট দিতে যান শিবকুমার।

জানা গেছে, সবাই যখন দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে, শিবকুমার কীভাবে সেই লাইন উপেক্ষা করে ভোট দিলেন? ভোট দিয়ে বের হতেই এই প্রশ্ন করেছিলেন সুধাকর। তার দাবি ‘আমি যখন এই প্রশ্ন করেছি, এমপি আমাকে শাসিয়ে বলেন, এই প্রশ্ন করার তুমি কে? তারপরই আমাকে চড় মারেন।’ তাকে চড় মারায় পাল্টা চড় মারেন তিনি। এ ঘটনায় হুলস্থুল পড়ে যায়।

সুধাকরের দাবি, এরপরই তাকে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে পুলিশ। কিন্তু তিনি জানিয়ে দেন, ভোট না দিয়ে যাবেন না। ভোট দেওয়ার পর তাকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে শিবকুমার ও তার সঙ্গীরা ছিলেন। থানায় সুধাকরকে বেধড়ক মারধর করা হয় বলে পাল্টা অভিযোগ উঠেছে।

ইতিমধ্যে চড়কাণ্ডে এমপি এবং তার সাত সঙ্গীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন সুধাকর। কিন্তু এর ফল যে খুব ভালো কিছু হবে না, তা আঁচ করতে পারছেন তিনি। নিজের এবং পরিবারের নিরাপত্তা চেয়ে পুলিশের কাছে আর্জি জানিয়েছেন তিনি। বলেছেন, ‘জানি না এ ঘটনার পরবর্তী ফল কী হতে পারে। আমার পরিবারের নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তায় রয়েছি। পুলিশের কাছে নিরাপত্তা চেয়েছি।’

আনন্দবাজার অনলাইনের প্রতিবেদনে বলা হয়, এ ঘটনায় ভিআইপি সংস্কৃতির সমালোচনা করে এমপির শাস্তি চেয়েছেন নাগরিকরা। তারা বলেছেন, একজন আইনপ্রণেতা ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোটারের সঙ্গে এ ধরনের আচরণ করতে পারেন না।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ১০ সেকেন্ডের ভিডিওতে ওই সময় ভোটারকে রক্ষায় নিরাপত্তা বাহিনীর কোনো কর্মকর্তাকে এগিয়ে আসতে দেখা যায়নি। এনডিটিভি জানিয়েছে, হাতাহাতি শুরু হওয়ার আগে ঠিক কী ঘটেছিল তা স্পষ্ট নয়। তবে ভোটারকে থাপ্পড় দেওয়ায় এ ঘটনা ঘিরে তীব্র সমালোচনা শুরু হয়েছে।

 

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত