সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

নির্বাচন করতে পারছেন না সেই সেলিম প্রধান 

আপডেট : ১৬ মে ২০২৪, ০৬:৫২ পিএম

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের চেয়ারম্যান পদে ক্যাসিনোকাণ্ডে সমালোচিত সেই সেলিম প্রধানের প্রার্থিতার ওপর স্থগিতাদেশ বহাল থাকবে বলে আদেশ হয়েছেন সর্বোচ্চ আদালতে। একই সঙ্গে আদালতের সময় নষ্ট করায় তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে সর্বোচ্চ আদালত।

সংশ্লিষ্ট বিষয়ে সেলিম প্রধানের করা দুটি পৃথক আবেদনের ওপর আজ বৃহস্পতিবার শুনানি না করে প্রত্যাহার চাইলে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে গঠিত আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

দুর্নীতির মামলায় চার বছরের সাজাপ্রাপ্ত সেলিম প্রধানের মনোনয়নপত্র গত ২৩ এপ্রিল বাতিল করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এ সিদ্ধান্ত বাতিল চেয়ে আপিল করলে গত ২৮ এপ্রিল তা খারিজ হয়ে যায়। পরে প্রার্থিতা ফিরে পেতে হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন তিনি। আবেদনের ওপর প্রাথমিক শুনানি নিয়ে গত ৩০ এপ্রিল হাইকোর্ট সেলিম প্রধানের মনোনয়নপত্র বাতিলের সিদ্ধান্তের ওপর অন্তবর্তীকালীন স্থগিতাদেশ দিয়ে তার মনোনয়নপত্র গ্রহণ ও তাকে প্রতীক বরাদ্দের নির্দেশসহ রুল দেয় হাইকোর্ট। হাইকোর্টের এ আদেশের বিরুদ্ধে ওই উপজেলা নির্বাচনে অংশ নেওয়া আরেক চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মো. হাবিবুর রহমান ও ইসি আপিল বিভাগের চেম্বার আদালতে আবেদন করেন।

৬ মে চেম্বার আদালত হাইকোর্টের আদেশের ওপর আট সপ্তাহের স্থগিতাদেশ দেন। পরে চেম্বার আদালতের এ আদেশ প্রত্যাহার চেয়ে আপিল বিভাগে দুটি আবেদন করেন সেলিম প্রধান। এর ধারাবাহিকতায় বিষয়টি শুনানিতে আসে। তবে সেলিম প্রধানের পক্ষে আবেদন দুটি প্রত্যাহারের আরজি জানান তার আইনজীবীরা।

সেলিম প্রধানের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এ কে এম নুরুল আলম। ইসির পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খান মোহাম্মদ শামীম আজিজ। নির্বাচনে অপর প্রার্থী হাবিবের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান ও মাহিন এম রহমান।

অ্যাডভোকেট খুরশীদ দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘আপিল বিভাগের আদেশে স্থগিতাদেশ বহাল থাকবে। তারা (সেলিম প্রধানের আইনজীবী) আবেদন করলেও তা প্রত্যাহার চেয়েছেন। আদালত তাদের দুই মামলায় ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছেন।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত