মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

নির্বাচনী পোস্টারে আধুনিকতা ডিজিটাল ছাপাখানায় ব্যস্ততা

আপডেট : ২৫ মে ২০২৪, ০২:১১ এএম

নির্বাচনে প্রার্থীদের প্রচার ও প্রচারণায় এসেছে আধুনিকতা, চায়না মিডিয়া ডিজিটাল কাপড়ের রঙিন ব্যানার ও পোস্টারে ঝোঁক বেড়েছে প্রার্থীদের। দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের পোস্টারে ছেয়ে গেছে এলাকা। ডিজিটাল ছাপাখানায় তৈরি এসব ব্যানার, পোস্টার ও ফেস্টুনে সেজেছে শহরের অলিগলি থেকে গ্রামের মেঠো পথ। প্রার্থী ও তার কর্মী-সমর্থকরা ভোটারদের কাছে ভোট চাওয়ার পাশাপাশি করমর্দন করে একটি করে লিফলেট ধরিয়ে দিচ্ছেন। প্রচার-প্রচারণার কাজের জন্য পোস্টার-ব্যানার ও হ্যান্ডবিল অগ্রিম অর্ডার দিচ্ছেন তারা। ফলে এলাকার ডিজিটাল ছাপাখানাগুলোতে চলছে ব্যস্ততা। শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার রোডের সাজেদুর মার্কেটে ছাপাখানাগুলোতে রাতদিন সমানতালে চলছে ছাপার কাজ।

পার্বতীপুরে ছোট-বড় মিলিয়ে ছয় থেকে আটটি ছাপাখানা রয়েছে। যার বেশিরভাগ ছাপাখানা শহরের প্রাণকেন্দ্র সাজেদুর মার্কেটে। এ ছাড়া নতুন বাজার ও উত্তরা সিনেমা হল সড়কে কয়েকটি ছাপাখানা রয়েছে। ছাপাখানাগুলোতে গিয়ে কথা বলে জানা যায়, তারা গড়ে ১৫ থেকে ২০ হাজার পোস্টার ছাপার অর্ডার পাচ্ছেন। ছাপা হওয়া পোস্টার, ব্যানার আর লিফলেট প্রতিদিন কিছু কিছু করে নিয়ে যান প্রার্থীর লোকজন।

সাজেদুর মার্কেট এলাকার জিসান ডিজিটাল ব্যানার অ্যান্ড প্রেসে সবচেয়ে বেশি অর্ডার হ্যান্ডবিল ও লিফলেটের। ছাপাখানায় ব্যস্ত মেশিনম্যান ও তাদের সহযোগীরা। ছাপাখানার মেশিনম্যান মাসুদ রানা বলেন, ‘অন্য সময়ের চেয়ে এখন ব্যস্ততা অনেক বেশি। মালিক প্রতিদিন কাজ নিচ্ছেন। সময়মতো কাজ বুঝিয়ে দেওয়া হচ্ছে গ্রাহককে।’

জিসান ডিজিটাল ব্যানার অ্যান্ড প্রেসের পরিচালক আতিয়ার রহমান বলেন, ‘পার্বতীপুর শহরে ছোট-বড় ছয় থেকে আটটি ছাপাখানা রয়েছে। রাতদিন সমানতালে ছাপার কাজ চলছে। অন্য সময়ের চেয়ে এবার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের জন্য কাজের বাড়তি চাপ যাচ্ছে। দুয়েক দিনের মধ্যে আরও ব্যস্ত হয়ে পড়বে ছাপাখানাগুলো।

সাজেদুর মার্কেটের আরেক ছাপাখানা শাহিন ডিজিটাল প্রেসের স্বত্বাধিকারী মো. শাহিন বলেন, ‘নির্বাচনের কারণে প্রায় প্রতিটি ছাপাখানায় ব্যস্ততা বেড়েছে।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত