শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

শিরোপা ধরে রাখার মিশনে ভারতের গ্রুপে সাবিনারা

আপডেট : ০৯ জুন ২০২৪, ০২:০১ এএম

২০২২ সালেও একই গ্রুপে ছিল বাংলাদেশ ও ভারত। তবে সেবার চার দলের গ্রুপে ছিল তারা। গ্রুপ ম্যাচে ভারতকে ৩-০তে উড়িয়ে সেরা হিসেবে সেমিফাইনালে যায় বাংলাদেশ। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে ভুটানকে সাবিনা খাতুনরা হারান ৮-০ ব্যবধানে। অন্যদিকে স্বাগতিক নেপালের কাছে হেরে সেমি থেকে বিদায় নিতে হয় ভারতকে। এরপর ফাইনালে স্বাগতিকদের ৩-১ উড়িয়ে ইতিহাসে ঢুকে পড়া বাংলাদেশের। ফের কড়া নাড়ছে সাফ উইমেন্স চ্যাম্পিয়নশিপ। শনিবার ঢাকার একটি পাঁচ তারকা হোটেলে সাফের অর্ডানারি কংগ্রেস শেষে হয়েছে এই আসরের ড্র। গতবারের মতো এবারও একই গ্রুপে খেলবে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ ও ভারত। তবে এবার তাদের গ্রুপে দল সংখ্যা তিনটি। তৃতীয় দল হিসেবে আছে পাকিস্তান।

চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সুবিধা অবশ্য পায়নি বাংলাদেশ। সাউথ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশন শনিবার উইমেন্স চ্যাম্পিয়নসহ মোট তিনটি আসরের ড্র আয়োজন করে। তারা ফরম্যাট হিসেবে ফিফা র‌্যাংকিং ও আয়োজক দেশকে গুরুত্বের দিক থেকে এগিয়ে রেখেছে। নারী সাফ এবারও অনুষ্ঠিত হবে নেপালের কাঠমান্ডুতে ১৭ থেকে ৩০ অক্টোবর। এই আসরের আয়োজক হওয়ার সুবাদে নেপাল প্রথম দল হিসেবে ‘বি’ গ্রুপে জায়গা পেয়েছে। আর র‌্যাংকিংয়ে সবার ওপরে থাকায় ভারত এ গ্রুপের প্রথম দল। র‌্যাংকিং অনুযায়ী এরপরই বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা। ড্র অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের নাম ওঠে ‘এ’ গ্রুপের দ্বিতীয় দল হিসেবে। তাতেই নিশ্চিত হয়ে যায় দক্ষিণ এশিয়ার নারী ফুটবলের দুই সেরা দলের আগেভাগেই দেখা হওয়া।

‘বি’ গ্রুপের সেরা নেপালকে সেমিফাইনালে আসতে লড়তে হবে শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ ও ভুটানের সঙ্গে। গ্রুপের সেরা দুটি করে দল নাম লেখাবে সেমিফাইনালে। এরপর ৩০ অক্টোবর কাঠমান্ডুর দশরথ রঙ্গশালায় হবে ফাইনাল। সাফের অর্ডানারি কংগ্রেস শেষে ড্র অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাফ ও বাফুফের সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন, সাফের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক হেলাল ও বিভিন্ন সদস্য দেশের প্রতিনিধিরা।

সাফ ঊইমেন্স চ্যাম্পিয়নশিপের ড্র

‘এ’ গ্রুপ

ভারত, বাংলাদেশ, পাকিস্তান।

‘বি’ গ্রুপ

নেপাল, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ ও ভুটান।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত